Breaking News
Home >> Breaking News >> এনআরসির ভয়ে নদিয়ার কালীগঞ্জে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ প্রায় ৫০০ কর্মীর

এনআরসির ভয়ে নদিয়ার কালীগঞ্জে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ প্রায় ৫০০ কর্মীর

স্টিং নিউজ সার্ভিস, কালীগঞ্জ (নদিয়া): এবার নদিয়ার কালিগঞ্জে বিজেপিতে বড়সড় ভাঙন ঘটালো তৃণমূল। তৃণমূলের দাবি, কালীগঞ্জের বড় চাঁদঘর গ্রাম পঞ্চায়েতের ৩১ ও ৩৬ নম্বর বুথে ঠাকুরবাড়ি ও শীতলপুর গ্রামের প্রায় পাঁচশত বিজেপি মহিলা ও পুরুষ কর্মি বুধবার তৃণমূলে যোগ দেন।

এদিন তৃণমূলের ব্লক সভাপতি দেবব্রত মুখার্জী ও যুব সভাপতি জিয়াউর রহমানের হাত ধরে তৃণমূলের দলীয় পতাকা তুলে নেন বিজেপি কর্মীরা।

সূত্রের খবর, যোগদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বড় চাঁদঘর পঞ্চায়েতের পঞ্চায়েত সভাপতি বরুন সিংহ রায়, তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের ব্লক সভাপতি সুরেশ আগরওয়াল, কিশান খেতমজুর সংগঠনের সভাপতি আকতার হোসেন।

তৃণমূল দলীয় সূত্রে খবর, এই পঞ্চায়েতের এলাকায় গত পঞ্চায়েত ও লোকসভা ভোটে তৃণমূল বিজেপি থেকে পিছিয়ে ছিল। তৃণমূল কংগ্রেসের উন্নয়ন ও কেন্দ্রে বিজেপি সরকারের এনআরসির ভয়ে বিজেপি কর্মীরা তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করলেন।

কালীগঞ্জ তৃণমূল কংগ্রেসের ব্লক সভাপতি দেবব্রত মুখার্জি বলেন, মতুয়া সম্প্রদায়ের মানুষদের বাস এই এলাকায়। যারা বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিলেন, তারা বেশির ভাগই হিন্দু সম্প্রদায়ের। মূলতঃ এনআরসির ভয়েই তারা তৃণমূলে যোগ দিলেন। পাশাপাশি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের উন্নয়নে সামিল হতে তৃণমূলে আসলেন।

বিজেপি কর্মিদের তৃণমূলে যোগদানের খবর উড়িয়ে দেন বিজেপি ১৫ নম্বর মণ্ডল সভাপতি বিশ্বজিৎ ঘোষ। তিনি বলেন, এই এলাকায় আমাদের বিজেপির ভোট বেশী। একটি জলাশয় নিয়ে ওখানে গন্ডগোল চলছিল বেশ কিছুদিন ধরে। বিজেপি কর্মীদের একটি মীমাংসার জন্য ডাকা হয় বিধায়ক আসার কথা ছিল কিন্তু আসেনি। সব মিথ্যে কথা জনা পঞ্চাশেক লোকজন নিয়ে একটি মিটিং করেছে মাত্র। তৃণমূলের লোকদের হাতেই পতাকা তুলে প্রচার করা হচ্ছে।

এছাড়াও চেক করুন

ফাঁসিদেওয়ার মুণি চা বাগানে গণ বিবাহ অনুষ্ঠানে হাজির পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব

বিশ্বজিৎ সরকার, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, দার্জিলিংঃ শুক্রবার শিলিগুড়ি মহকুমার ফাঁসিদেওয়া ব্লকের মুণি চা বাগানে শ্রীহরি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.