Breaking News
Home >> Breaking News >> চলছিল পাত্রী দেখাশোনা, বিয়ের আগেই সব শেষ নাকাশিপাড়ার যুবকের

চলছিল পাত্রী দেখাশোনা, বিয়ের আগেই সব শেষ নাকাশিপাড়ার যুবকের

শুভায়ুর রহমান, স্টিং নিউজ, নাকাশিপাড়া, নদিয়াঃ সেই যে ছেলেটা গেল আর ফেরা হল না। চলছিল বিয়ের দেখাশোনাও তার আগেই সব শেষ হয়ে গেল। গ্রামের আনাচেকানাচে এখন একটাই প্রশ্ন কি এমন হল সাদামাটা ছেলেটি? সহকর্মীদের উপর গুলি চালিয়ে নিজেই শেষ হল! মৃত আইটিপি জওয়ান মাসুদুর রহমানের গ্রাম নদিয়ার নাকাশিপাড়ার বিলকুমারি গ্রামের বাড়িতে মানুষজনের ভিড়।

বুধবার ছত্রিশগড়ের নারায়ণপুরে আইটিবিপি জওয়ান মাসুদুর রহমান নির্বিচারে সহকর্মীদের উপর গুলি চালালে পাঁচজনের মৃত্যু হয়। আহত হয়েছেন আরও দুজন। সহকর্মীদের গুলি করার পর মাসুদুর রহমানও গুলি চালিয়ে আত্মঘাতী হয়েছে বলে সংবাদে প্রকাশ।

জানা গেছে, নাকাশিপাড়ার বিলকুমারি গ্রামের বাসিন্দা মারফত আলি সেখ ও হানিফা বিবির ছেলে মাসুদুর রহমান। সে ছত্রিশগড়ে আইটিবিপি জওয়ান হিসাবে পোস্টিং ছিল। তার বিয়ের জন্য পাত্রী দেখাশোনা চলছিল বলে গ্রাম সূত্রে জানা গেছে। মৃত জওয়ানের মা হানিফা বিবি বলেন, ছেলে বলেছিল দু,মাসের ছুটি নিয়ে বাড়ি যাবে। আমাকে বলেছিল যেন না কাঁদি। বাড়িতে ছোটভাই আছে তাকে দেখো। বিয়ের জন্য দেখাশোনা করছিলাম। ছুটি দিলে হয়তো এই ঘটনা ঘটতো না।’ জানান মাসুদুরের মা।

মাসুদুরের বাবা মারফত আলি সেখ জানান, বলেছিলাম ছুটিতে চলে এসো। তোমার জন্য মেয়ে দেখেছি। বলে ছোটভাইকে দেখালে পছন্দ হলে হয়ে যাবে বলেছিল।’ এদিন দুপুরের পর থানা থেকে গ্রামের উপ প্রধানকে ফোন করেছিল। উপপ্রধান বাড়িতে বলেছিল বলে জানায় মাসুদুরের বাবা মারফত সেখ।

এছাড়াও চেক করুন

আগামী পুরসভা ভোটে আসন সংরক্ষণ নিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি দিলীপ যাদব

স্টিং নিউজ সার্ভিস, হুগলি: আগামী পুরসভা ভোটে দেখা যাচ্ছে যে সংরক্ষণের আওতায় পড়ে গিয়ে অনেক …

Leave a Reply

Your email address will not be published.