Breaking News
Home >> Breaking News >> নদিয়ার ধানতলায় ছেলের হাতে খুন সৎ বাবা

নদিয়ার ধানতলায় ছেলের হাতে খুন সৎ বাবা

স্টিং নিউজ সার্ভিস, ধানতলা, নদিয়াঃ সাংসারিক অশান্তির জেরে সৎ বাবাকে কুপিয়ে খুন করলো ছেলে। অভিযোগ এমনই। শনিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার ধানতলা থানার আড়ংঘাটা জাগ্রতপাড়া এলাকায়। ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত ছেলে গৌরব বৈদ্য বিশ্বাস পলাতক বলে জানায় পুলিশ। তার খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা যায়।

খুন হওয়া ব্যক্তির নাম প্রেমা বিশ্বাস (৪৮)। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।

পুলিশ সূত্রে খবর, ধানতলা থানার আড়ংঘাটা জাগ্রতপাড়া এলাকার বাসিন্দা ছিলেন প্রেমা বিশ্বাস। জানা যায়, আজ থেকে প্রায় বছর পঁচিশ আগে স্ত্রী আরতি বিশ্বাসকে নিয়ে সংসার পাতেন তিনি। আরতি দেবীর গর্ভে এক ছেলে ও এক মেয়ে হয়।

খুন হওয়া ব্যক্তির একমাত্র মেয়ে বিউটি বিশ্বাস অভিযোগ করে বলেন, অভিযুক্ত গৌরব ও তার মা সহ এক ভাইকে আমাদের বাড়িতে আশ্রয় দেয় বাবা। সেটাও আজ থেকে প্রায় কুড়ি-বাইশ বছর আগের কথা।

বিউটি বিশ্বাসের আরও অভিযোগ, কিছুদিন আগে হঠাৎ ওদের বাবা ফিরে আসে এবং গৌরবের মার সঙ্গে অশান্তি বাঁধায়। গৌরবদের অনেক সোনা- দানার লোভ দেখিয়ে ওর বাবা আমাদের এখান থেকে নিয়ে যায়।

শনিবার সন্ধ্যায় গৌরব এসে ওর মা আরতি বৈদ্য (বিশ্বাস) এর সাথে অশান্তি বাঁধায়। বাবা তার প্রতিবাদ করতে গেলে, গৌরব বাবাকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। বাবার মৃত্যু নিশ্চিত জেনে সেখান থেকে সপরিবারে পালিয়ে যায়। আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এলে বাবার নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখি।

বিউটি বিশ্বাস এও জানায়, বাবা বছরের বেশিভাগ দিন অসমের কামাক্ষায় থাকতেন। বাবা আমাদের থেকেও ওদের বেশি ভালোবাসত।

তার আরও অভিযোগ, শনিবার গৌরবের বাড়িতে জন্মদিনের অনুষ্ঠান ছিল। বাবার কাছ থেকে সমস্ত টাকা পয়সা নিয়ে নেয়। এরপর অশান্তি বাঁধিয়ে বাবাকে খুন করে। আমি ধানতলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি।

অভিযোগের ভিত্তিতে খুনের মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ধানতলা থানার পুলিশ।

এছাড়াও চেক করুন

সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে আত্মহত্যা করলেন এক স্কুল শিক্ষক

বিশ্বজিৎ মন্ডল, স্টিং নিউজ, মালদাঃ পারিবারিক নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.