Breaking News
Home >> Breaking News >> করিমপুরে কোন দল কত ভোট পেল জানুন

করিমপুরে কোন দল কত ভোট পেল জানুন

স্টিং নিউজ সার্ভিসঃ বৃহস্পতিবার রাজ্যের অন্যান্য দুটি উপনির্বাচনের পাশাপাশি করিমপুর বিধানসভা উপনির্বাচনের ফলাফল বের হতেই বাঁধনহারা উচ্ছ্বাস দেখতে পাওয়া গেল তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী সমর্থকদের মধ্যে। এই কেন্দ্রে প্রত্যাশিত ভাবেই বড় ব্যবধানে জয়লাভ করলেন, তৃণমূল প্রার্থী বিমলেন্দু সিংহ রায়। তিনি তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি প্রার্থী মজুমদারকে ২৪ হাজার ১১৯ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে দ্বিতীয়বারের জন্য করিমপুর আসনটি ধরে রাখলেন। এখানে জোট প্রার্থী গোলাম রাব্বি তৃতীয় স্থান পান। তাদের প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা ১৮, ৫১৯ । সেখানে বিজেপি প্রার্থী জয়প্রকাশ মজুমদার পান ৭৮, ৫০২ । তৃণমূল পায় ১০২, ৬২১ । উপর্যুপরি দ্বিতীয় বারের জন্য এই আসনটি ধরে রাখল তৃণমূল কংগ্রেস। যদিও এখনও কিছু পোস্টাল ব্যালট গোনা বাকি আছে। তাতেও তৃণমূলের জয়ে কোনও বাধা আসবেনা বলে মত রাজনৈতিক মহলের।

সোমবার রাজ্যের অন্য দুটি কেন্দ্রের পাশাপাশি এই কেন্দ্রেও উপ নির্বাচন হয়। সেদিন কয়েকটি বিক্ষিপ্ত ঘটনা ছাড়া মোটের উপর একপ্রকার শান্তিতেই ভোট পর্ব সম্পর্ন হয়। এই কেন্দ্রে ২৬১ টি বুথে প্রায় আড়াই লক্ষ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। নির্বাচনের দিন এই কেন্দ্রের পিপুলবেরিয়ায় একটি ভোট গ্রহণ কেন্দ্রে দুই বিজেপি এজেন্ট কে অপহন এবং ইসলামপুর এলাকায় বিজেপি প্রার্থী জয়প্রকাশ মজুমদার কে নিগ্রহের ঘটনার অভিযোগ ওঠে। দুই এজেন্ট কর্মীর অপহরণের অভিযোগ কে ঘিরে উত্তেজিত হয়ে উঠতে দেখা যায় বিজেপি প্রার্থীকে।

এছাড়াও অন্য একটি বুথে ভোট কেমন চলছে দেখতে গিয়ে গিয়ে, তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী সমর্থকদের তোপের মুখে পড়েতে হয় বিজেপি প্রার্থীকে। সেদিন বিজেপি প্রার্থীর সঙ্গে তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের মধ্যে এক প্রকার বচসা সৃষ্টি হয়। যার জেরে এক তৃণমূল সমর্থকের লাথিতে জয়প্রকাশ মজুমদার রাস্তার পাশে জঙ্গলে ঢুকে যান। যদিও তৃণমূলের তরফ থেকে জানানও হয় সবটাই বিজেপির নাটকবাজি। তবে বেশিভাগ করিমপুরবাসীর ধারণা ওই এক পদঘাতেই কুপোকাত হলেন বিজেপি প্রার্থী জয়প্রকাশ। ফলে নির্বাচনের দিন হুংকার ছাড়লেও এদিন কয়েক রাউন্ড গণনার পর আর তাকে দেখা যায়নি। গণনার শেষে বিজেপি প্রার্থীকে প্রশ্ন করলে, তিনি বিমলেন্দু সিংহ রায় কে জয়ের জন্য অভিনন্দন জানান। হারের বিষয়ে তিনি বলেন, ভোটে হারজিত আছেই। আর সেটাই স্বভাবিক।

এদিন রাজ্যের অন্যান্য দুটি আসনের মতই করিমপুরেও সহজ জয় পেল তৃণমূল। শুধু সহজ নয়, প্রত্যাশামতোই করিমপুরে বড় ব্যবধানে জয় পেল তৃণমূল কংগ্রেস। এদিন রাজ্যের অন্যান্য দুটি বিধানসভা উপনির্বাচনের ফলাফল আগেই ঘোষণা হয়ে যায় সেখানে দেখা যায় কালিয়াগঞ্জ এর মত শক্ত ঘাঁটিতে বেশ বড় ব্যবধানে প্রথম থেকে পিছিয়ে থেকেও জয় ছিনিয়ে নেয় তৃণমূল প্রার্থী। পাশাপাশি খড়্গপুরেও এই প্রথমবারের জন্য বিধায়ক পেল তৃণমূল।

এদিন সকাল থেকেই রাজ্যের অন্যান্য দুটি বিধানসভার পাশাপাশি নজর ছিল করিমপুরেও। সেখানে জয়প্রকাশ মজুমদার কতটা লড়াই দিতে পারবেন সে বিষয়ে ভিন্ন ভিন্ন মত ছিল রাজনৈতিক মহলে। রাজনৈতিক মহলের ধারণা ছিল নির্বাচনের দিন বিজেপি প্রার্থী জয়প্রকাশ মজুমদার কে যেভাবে কিল চড় ঘুষি এবং ব্যাপকভাবে মারধর করার অভিযোগ উঠেছিল , তার জেরে ভোট বাক্সে কতটা প্রভাব পড়ে সেটাই ছিল দেখার বিষয়। এদিন করিমপুরের আইটিআই কলেজ ভবনের কুড়িটি টেবিলে মোট ১৪ রাউন্ড গণনা হয়। সেখানে প্রথম থেকেই এগিয়ে থাকতে দেখা যায় তৃণমূল প্রার্থী বিমলেন্দু সিংহ রায় কে। মাঝে ষষ্ঠ এবং সপ্তম রাউন্ডে বিজেপি প্রার্থী কিছুটা আশার আলো দেখিয়েছিলেন কর্মী-সমর্থকদের মনে। এরপর আর পেছনে তাকাতে হয়নি বিমলেন্দু সিংহ রায় কে।

গণনা কেন্দ্র থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের সামনে বিমলেন্দু বাবু বলেন, এ জয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর জয়। এ জয় সাধারণ মানুষের জয়। রাজ্য জুড়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়ের ফসল হল আমার জয়। তৃতীয় হওয়া জোট প্রার্থী গোলাম রাব্বি বলেন, বিভাজনের রাজনীতির শিকার আমি। এখানে পুরুপুরি ভোট হয়েছে বিভাজনের রাজনীতিতে।

এছাড়াও চেক করুন

সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে আত্মহত্যা করলেন এক স্কুল শিক্ষক

বিশ্বজিৎ মন্ডল, স্টিং নিউজ, মালদাঃ পারিবারিক নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.