Breaking News
Home >> Breaking News >> বুলবুল প্রভাব ফেলল রবিবাসরীয় বাজারে, ঘাটতি মাছ-সবজির!

বুলবুল প্রভাব ফেলল রবিবাসরীয় বাজারে, ঘাটতি মাছ-সবজির!

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ, হাওড়াঃ বুলবুল-এর প্রভাব পড়ল খোলা বাজারে। রবিবার সকাল থেকে বাজারে ঘাটতি ছিল সবজি-মাছের। ব্যাগ হাতে বাজারে পৌঁছেও টাটকা সবজি ও মাছ না পেয়ে বেজার হয়েছেন মধ্যবিত্ত বাঙালি। মুরগির মাংস নিয়ে ঘরমুখো হতে বাধ্য হয়েছেন।

হেমন্তের এই মরশুমে টাটকা সবজির দেখা মেলে। বাঁধাকপি, ফুলকপি, মুলো, পালং, পেঁয়াজকলি। এমন একটি সময় খলনায়ক বুলবুল। শনিবার পাইকারি বাজারে লরি না আসার কারণে মেলেনি সবজি। শুক্রবার কিনে আনা সবজি রবিবার বিক্রি হয়েছে। রবিবার ভোররাতে মাছের লরি না ঢোকায় খোলা বাজারে মাছের জন্য একপ্রকার হাহাকার। মাছ ভাতে বাঙালি রুই-কাতলাকে ছাড়াই আত্মার শান্তি করেছেন মুরগির ঝোল দিয়ে। জেলায় ঝড়ের প্রভাব কম থাকলেও ভোজনরসিক বাঙালির পাতে আঘাত হেনেছে বুলবুল। রান্নার তালিকায় মাছকে দিয়ে কাটলো একটা আস্ত রবিবার।

সাঁকরাইল, রানিহাটি এলাকার মাছ ব্যবসায়ীদের কথায়, বুলবুল আসবার কারণে মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ ছিল। তার একটা প্রভাব পড়েছে। সেইসঙ্গে শনিবার বহু ট্রাক মোহনার দিকে না যাওয়ায় মাছ আসেনি। কাকদ্বীপ, ডায়মন্ড হারবারের দিক থেকে আসা মাছের গাড়ি ছিল বন্ধ। রাতের দিকে বুলবুল হানা দেবার আশংকায় বহু মাছ ব্যবসায়ী বাড়ি চলে গিয়েছেন। তাদের আসতে সেই সোমবার দুপুর। সবমিলিয়ে রবিবার আড়ত ছিল সামুদ্রিক মাছ ছাড়া। যে ক’জনের মাছ ফ্রিজে ছিল সেগুলোই বিক্রি হয়েছে। তাও সলতে পাকানোর মতো। মাছ কিনতে এসে ফিরে গেছেন খোলা বাজারে মাছ বিক্রি করা মানুষজন।

সুশীল দে, রবীন জানা, বুদ্ধদেব দেয়াশী সহ ক্রেতাদের কথায় ফুটে উঠেছে হতাশা। রবিবার হোক বা বেবার মাছ বিহীন কাটানো মুশকিল। পেঁয়াজের দাম আশি টাকা কিলো তা বলে কি কিনছে না পেঁয়াজ! এ দিন বাজারে দিশেহারা দেখিয়েছে মাছ কিনতে আসা ক্রেতাদের। খাসির মাংস ৬২০টাকা। ওই দামে কেনাটা সম্ভব নয়। বাধ্য হয়ে মুরগির মাংস কিনে রবিবার কাটাতে হয়েছে। বুলবুল আসবার খবর এতটাই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে যে আতংক চেপে বসেছিল। মাছ আড়তদারদের একাংশ দাম বাড়ানোর অছিলাও রয়েছে।

সাধারণ মানুষের অভিযোগ, খোলা বাজারে এ দিন পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে আশি টাকা দরে। টমেটো সত্তর। আলু কুড়ি। আদা, রুসন, কাঁচা লংকা ছেঁকা দিচ্ছে। দামের পারদ প্রতিদিন চড়ছে। সরকার আদৌ কি খেয়াল দিচ্ছে এখনও জানা গেল না। বুলবুল কে কেন্দ্র করে সাধারণ মানুষের দুরবস্থার সুযোগ নিল মুরগী ব্যবিসায়ীরা। ভাইফোঁটা, জামাই ষষ্ঠীর মতো লম্বা লাইন দিয়ে কিনতে হয়েছে মাংস। যা হেমন্তের পাতা ঝরা দিনে দেখা মেলে না।

এছাড়াও চেক করুন

ফাঁসিদেওয়ার মুণি চা বাগানে গণ বিবাহ অনুষ্ঠানে হাজির পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব

বিশ্বজিৎ সরকার, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, দার্জিলিংঃ শুক্রবার শিলিগুড়ি মহকুমার ফাঁসিদেওয়া ব্লকের মুণি চা বাগানে শ্রীহরি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.