Breaking News
Home >> Breaking News >> নাকাশিপাড়ায় অসুর বৃষ্টির প্রভাবে ব‍্যহত প্রতিমা নিরঞ্জন

নাকাশিপাড়ায় অসুর বৃষ্টির প্রভাবে ব‍্যহত প্রতিমা নিরঞ্জন

নবেন্দু ভট্টাচার্য্য, স্টিংনিউজ করেসপনডেন্ট, নাকাশীপাড়া, নদীয়াঃ গতকাল ছিল দশমী ও শারদীয়া পুজোর সমাপ্তি। প্রতিমা নিরঞ্জন হবার কথা প্রথা অনুযায়ী। কিন্তু তারই ব‍্যাতিক্রম ঘটল। সকাল থেকেই রোদ ঝলমলে আকাশ ছিল। মন্ত্র উচ্চারণ শেষবারের মত শোনা যাচ্ছিল লাউড স্পিকারে। আর কিছু সময় পরে স্তব্ধ হয়ে যাবে সব। বিষাদে ভরে যাবে অকুণ্ঠ বাঙালির হৃদয়। সকলের নয়নে নামবে অশ্রু বারি, তাতেই ধৌত হবে মা মহাশক্তির চরণ তল। কম্পিত কন্ঠে আকুল আবেদন মা গো পতিগৃহে ফিরে যাও, আসছে বছর আবার এসো । সুখ শান্তি সমৃদ্ধি কামনা করেন কল‍্যানময়ী মায়ের কাছে, “আমার সন্তান যেন থাকে দুধে ভাতে”।

কিন্তু মানুষের মনে যখন বিষন্নতার মেঘ জমছে আর বর্ষিত হচ্ছে অশ্রু বারি, ঠিক সেই সময় সকলের দৃষ্টি পরল আকশের দিকে। কালো ঘন ওসুর রূপি মেঘের ঘনঘটা। আতঙ্কিত হল সকলে, তবে কি হবেনা প্রতিমা নিরঞ্জনের শোভাযাত্রা। ঠিক সেটাই সত‍্যি হল দুপুর গড়াতেই শুরু হল ঝমঝমিয়ে বর্ষন। যেন শ্রাবনের বারিধারা হার মানে বৃষ্টি। বাহির ছেড়ে ঘর মুখো হয় মানুষ। সব শেষ।থামল নাবারি বর্ষণ, কখনো রয়ে রয়ে, কখনো মুষলধারে। বৃষ্টিপাতে সত্যি ব‍্যহত হল বিসর্জন। প্রস্তুতি ছিল সব কিছুই।

বাধ্য হলেন প্রশাসন, পূজা কমিটির সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিলেন বিসর্জনের শোভাযাত্রা স্থগিত রাখার। মাইকে প্রচার করা হল এই বার্তা। নির্দিষ্ট দিন ঠিক করে বিসর্জন হবে। প্রশাসনের অনুমতিতে মোট ৫৯ টি প্রতিমা নিরঞ্জনের শোভাযাত্রা করা যাবে বলে প্রশাসন সূত্রে জানা যায়। তখনও প্রতিমা দর্শনের জন‍্য ছাতা মাথায় প্রতিক্ষায় রত মানুষ। বৃষ্টি যত বাড়ে জনশূন্য হতে থাকে।

তারপর সন্ধ্যা গড়াতেই শুনশান রাস্তা। এই প্রথম ব‍্যহত হল বিসর্জন। তবুও বৃষ্টিতে দু একটি প্রতিমা বের হয়েছিল। আজ ও সকালের থেকেই বৃষ্টিপাত দেখে অনেক প্রতিমা শোভাযাত্রা দিনে দিনেই সেরে ফেলে। ভরসা করতে পারছেন না প্রকৃতির উপরে।

এছাড়াও চেক করুন

ফের সেতু উদ্বোধন নিয়ে দেখা দিল তৃনমুল বিজেপি সংঘাত

নরেশ ভকত, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, বাঁকুড়াঃ ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কের উপর নবনির্মিত একটি রেলওয়ে ওভার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.