Breaking News
Home >> Breaking News >> বিজেপিকে আটকাতে ছত্রধর মাহাতকে জেল থেকে ছাড়াতে হচ্ছে, বললেন দিলীপ ঘোষ

বিজেপিকে আটকাতে ছত্রধর মাহাতকে জেল থেকে ছাড়াতে হচ্ছে, বললেন দিলীপ ঘোষ

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝাড়গ্রাম : ছত্রধর মাহাতোকে জেল থেকে ছাড়তে হচ্ছে বিজেপিকে আটকাবার জন্য রবিবার বিকেলে ঝাড়গ্রামের সভা থেকে এমনই কথা বললেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ। দিলীপ ঘোষ বলেন, ২০১১ সালে দিদিমণি মাওবাদীদের হাত ধরে জিতেছিলেন।

গ্রামে-গঞ্জে ঘুরে ঘুরে মানুষকে ভয় দেখিয়েছিল। মানুষ ভয়ে ভোট দিতে যায়নি। খুন করে যেখানে সেখানে টাঙিয়ে দিত। সেই মাওবাদীদের খোঁজে তিনি বেরিয়েছেন। সেই মাওবাদীদের হাড়ে আর সেই জোর নেই। ঘুণ ধরে গিয়েছে। জেলে ৮ বছর থেকে কোমরে ব্যাথা হয়ে গিয়েছে। তাই মাওবাদীরা বিজেপিকে কি করে আটকাবে?
দিলীপবাবু বলেন, এখানকার মানুষ একমুঠো মুড়ি খেয়ে থাকে এবং বুকে গুলি খেয়ে নেবে কিন্তু কারো কাছে মাথা নত করবে না।

যারা বুঝতে পারেনি, তাদের বুঝিয়ে দেওয়ার দিন এসেছে। তাই এখানে দিদিমণি শুভেন্দু অধিকারি আসছেন মাওবাদীদের নিয়ে মিটিং করছেন। তাদের হাতে বন্দুক তুলে দেওয়ার কথা হচ্ছে। তারা কোথায় হাতিয়ার লুকিয়ে রেখেছে তা বের করা হচ্ছে। যতই বন্দুক বা হাতিয়ার আনুন আমাদেরকে চমকাতে পারবেন না। নির্বাচনে জিততে পারবেন না। পুরসভা নির্বাচনে যদি মনে করেন পুলিশ, গুণ্ডা দিয়ে জিতবেন আমরাও দেখে নিতে চাই।

কার কব্জির কত জোর আছে আর কার কত বন্দুক আছে? রাস্তায় জবাব দেব। আমিও দেখতে চাই কে কত মায়ের দুধ খেয়েছে? আমরাও এখানকার জল খেয়েছি লাল মাটিতে বড় হয়েছি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও শুভেন্দু অধিকারি যদি ভেবে থাকেন ওখান থেকে এসে ঝাড়গ্রামের লোককে ভয় দেখিয়ে দিয়ে মাওবাদীদের দিয়ে ভয় দেখিয়ে ভোট লুটে নেবেন। আমিও চ্যালেঞ্জ করছি আমিও ঝাড়গ্রামের ছেলে।

আমি এখানকার জল খেয়েছি। কার গায়ে কত জোর আছে আমরাও বুঝে নেব। আর সেই বোঝা-বুঝিটা পুরসভা নির্বাচন থেকে দেখব।

এছাড়াও চেক করুন

দিনহাটায় খোঁজ মিলল বেআইনি বোমা কারখানার, গ্রেপ্তার ১

মনিরুল হক, স্টিং নিউজ, কোচবিহারঃ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বোমা তৈরির সরঞ্জাম সহ এক ব্যক্তিকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.