Breaking News
Home >> Breaking News >> বাড়ি থেকে স্কুলে যাওয়ার পথে নিখোঁজ ছাত্র বাগনানে,চিন্তায় পরিবারের লোকজন

বাড়ি থেকে স্কুলে যাওয়ার পথে নিখোঁজ ছাত্র বাগনানে,চিন্তায় পরিবারের লোকজন

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ, হাওড়াঃবাড়ি থেকে স্কুলে যাওয়ার পথে নিখোঁজ হল বাগনান থানার অন্তর্গত সন্তোষপুর শ্রীগৌরাঙ্গ বিদ্যাপীঠ-এর ছাত্র দিব্যেন্দু সাঁতরা। বিষয়টি লিখিত আকারে বাগনান থানায় জানানো হয়েছে। ঘটনার চারদিন পরেও ছাত্রটির কোনও খোঁজখবর না মেলায় চরম আতঙ্কে পরিবার।

গত মঙ্গলবার স্কুল বেরিয়ে আর বাড়ি ফেরেনি বাগনান আন্টিলা কুলিতাপাড়া গ্রামের দিব্যেন্দু সাঁতরা(১৩)। স্কুলের শিক্ষক থেকে প্রতিবেশী, আত্মীয়-পরিজন সর্বত্র খোঁজ করেও কোন খবর পাওয়া যায়নি। বাড়ি থেকে স্কুলের সাদা রঙের ফুল হাতা জামা এবং নীল ফুল প্যান্ট, কাঁধে স্কুলের ব্যাগে বই খাতা পেন ভরে সেই যে বেরিয়েছে তারপর থেকে আর কোনও খোঁজখবর নেই। বাড়ি থেকে স্কুলের দূরত্ব পাঁচ মিনিট। পায়ে হেঁটে ওইদিন স্কুল বেরিয়েছিল। শেষ বারের মত আন্টিলা ব্রিজের পাশে দেখা গিয়েছিল।

বাবা অষ্ট সাঁতরা বলেন, “ছেলেটা আমার ক্লাস এইটে পড়ে। বয়স সবে তেরো। পড়াশোনায় বরাবর ভালো। স্কুলে এক থেকে দশের মধ্যে রেজাল্ট করে। গত মঙ্গলবার স্কুল যাবে না বলছিল। ওর মা একটু বকা দিয়েছিল। তারপর স্কুল বের হয়। কিন্তু স্কুলের এক ছাত্রী মারা যাওয়ায় ওইদিন ছুটি দিয়ে দেওয়া হয়। পৌনে এগারোটা থেকে ওর মা খোঁজ নেওয়া শুরু করে। সেই থেকে কোথাও খোঁজ পাওয়া যায়নি। পরেরদিন তিন তারিখ বাগনান থানায় লিখিত অভিযোগ জানানো হয়।

ছেলে নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় ভেঙে পড়েছেন মা। তিনি জানান, ছেলে আমার শান্ত। পড়াশোনার প্রতি আগ্রহ ছিল বেশি। ওর বাবা প্যান্ডেল বেঁধে সংসার চালায়। শত্রু আমাদের কেউ নেই। চারদিন বাড়িতে ছেলে নেই নাওয়া-খাওয়া সব উঠে গেছে। ও বরাবরই শান্ত। আমার ছোট মেয়ে দাদার জন্য কাঁদছে। থানা থেকেও কোন সদুত্তর নেই। বাধ্য হয়ে ট্রেনে, বাসস্ট্যান্ডে ছেলের ছবি সমেত পোস্টার মারা হয়। যদি কোনভাবে ছেলের খোঁজ মেলে। মেধাবী ও দায়িত্বজ্ঞান সম্পন্ন ছেলে। বরাবরই শান্ত ও সংযত থাকে। বাড়ির লোকজন মেচেদা, পাশকুড়া, খড়গপুর স্টেশনে খোঁজ নিয়ে খালি হাতে ফিরে এসেছে।

হাওড়া জেলা (গ্রামীণ) পুলিশ সুপার সৌম্য রায় জানিয়েছেন, এ বিষয় এখনও কোন তথ্য পাইনি। আমরা চেষ্টা চালাচ্ছি যা যা করবার।

সাঁতরা পরিবারের পরিচিত এবং ছাত্রটির সম্পর্কিত দাদা সুরজিত আদক বলেন, বাগনান থেকে খড়গপুর সমস্ত এলাকায় খোঁজখবর নেওয়া হয়েছে। আজ অবধি ফোন করে কেউ কিছু বলেনি।

দিব্যেন্দু খুবই শান্ত। বলা চলে ট্রেনের মুখ দেখেনি। কিভাবে কোথায় চলে গেল কিছু বোঝা যাচ্ছে না। ওঁর স্কুল ব্যাগে টাকা-পয়সাও ছিল না। দিব্যেন্দু’র সহপাঠী জানিয়েছে ওইদিন স্কুলে গিয়েছিল। তারপর আর কিছুই জানে না। স্কুলেও কথা বলা হয়েছে সদুত্তর নেই। সবার কাছে আমরা অনুরোধ করছি যদি উদ্ধার করা যায় মেধাবী ছাত্র দিব্যেন্দু সাঁতরাকে।

এছাড়াও চেক করুন

ভারত জাকাত মাঝির ডাকা পথ অবরোধের জেরে স্তব্ধ ঝাড়গ্রাম

স্টিং নিউজ সার্ভিস, ঝাড়গ্রামঃ ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষ থেকে সাঁওতালি মাধ্যমে শিক্ষক শিক্ষণের ডিএলএড কোর্স চালু ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published.