Breaking News
Home >> Breaking News >> ঝাড়গ্রামে ফের শক্তি বৃদ্ধি, তৃণমূল ও সিপিএম ছেড়ে বিজেপিতে যোগ

ঝাড়গ্রামে ফের শক্তি বৃদ্ধি, তৃণমূল ও সিপিএম ছেড়ে বিজেপিতে যোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝাড়গ্রাম:- ঝাড়গ্রামে ফের শক্তিবৃদ্ধি করলো বিজেপি। রবিবার ঝাড়গ্রামের বাছুরডোবায় বিজেপির সভায় সিপিএমের ঝাড়গ্রাম জেলা কমিটির সদস্য অসীম নন্দী সহ তাঁর অনুগামী ৮০০ সমর্থক বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও ঝাড়গ্রামের জেল সভাপতির হাত ধরে বিজেপিতে যোগদান করলো। এওছাড়াও সাঁকরাইলের রোহিনী গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল প্রধান সারথী সিংহ, ঝাড়গ্রামের রাধানগর গ্রাম পঞ্চয়েতের নির্দল সদস্য বুলবুলি কিস্কু, সাপধরা পঞ্চায়েতের নির্দল সদস্য বুলবুলি মণ্ডল, জামবনি ব্লকের কেন্দডাংরি পঞ্চায়েতের নির্দল সদস্য বিশ্বজিৎ মাহাতোর মতো অনেকে বিজেপিতে যোগ দেন। জামবনির পড়িহাটি ও রোড চন্দ্রকোনার কয়েকশো সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষও এ দিন বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন।

বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন পশ্চিমবাংলায় জামাত-সিমির লোকেদের নিয়ে আসছেন দিদি। আমাদের সঙ্গে মারপিটে আর পারছেন না। তাই সিমি, জামাত, আল-কায়েদার উগ্রপন্থীদের নিয়ে এসে বোমা-বন্দুক দিয়ে লড়াই করছেন। আমাদের কর্মীদের খুন করছেন। চলতি বছরই খুন হয়েছেন ৫৫ জন। ‘১৩ সাল থেকে ৬৭ জন। এনআরএস-এ যারা ডাক্তারদের মেরেছে তারাও জামাতের লোক। সন্দেশখালিতে যারা খুন করেছে তারাও জামাতের লোক। কলকাতা হাসপাতালে যারা গত বছরও লড়াই করে ভেঙে ছিল তারাও জামাতের লোক। সারা বাংলায় জামাত, সিমি, আল-কায়েদা দাপিয়ে বেড়াচ্ছে”।তিনি এমনটাও দাবি করেন, “অনেক লড়াইয়ের মধ্যে আমাদের কাজ করতে হয়েছে। অনেক মানুষকে মারপিট, ঘরভাঙচুর, হাজার হাজার মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে। হাসপাতাল, বাড়ি, কোর্ট করতে আমাদের অনেকটা সময় গেছে। তবে আপনারা লিখে রাখুন, কার কত খরচ হয়েছে, ক্ষমতায় এলে সেই পুলিশ কেউ থাকবে না।

এছাড়াও চেক করুন

হাওড়া স্টেশনে নিউ কমপ্লেক্সে আগুন

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ, হাওড়া: বৃহস্পতিবার বিকালে আগুন লাগলো হাওড়া স্টেশনের নিউ কমপ্লেক্সে। নিয়ন্ত্রণে আনতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.