Breaking News
Home >> Breaking News >> পরিবহ’র প্রতি মমতা জ্ঞাপনে কার্পণ্য কেন প্রশ্ন চিকিৎসকদের একাংশের

পরিবহ’র প্রতি মমতা জ্ঞাপনে কার্পণ্য কেন প্রশ্ন চিকিৎসকদের একাংশের

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ, হাওড়া: নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে জুনিয়র ডাক্তারদের উপর হামলার ঘটনার জের রাজ্য ছাড়িয়ে দেশের রাজধানী পর্যন্ত সরগরম। ঘটনায় গুরুতর আহত জুনিয়র ডাক্তার পরিবহ মুখোপাধ্যায়ের সুস্থতায় আম জনতা। হামলার প্রতিবাদে এককাট্টা দেশের চিকিৎসক মহল। তবুও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দেখতে গেলেন না বেডে শুয়ে থাকা অসুস্থ পরিবহ কে।

এর আগে অসুস্থ সুচিত্রা সেনকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এসএসকেএম হাসপাতালে অসুস্থ বড়মাকেও দেখে এসেছিলেন। সৌজন্যবোধ দেখিয়ে বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নানকে অ্যাপোলো হাসপাতালে দেখে এসেছেন। এমন সহানুভূতিশীল মুখ্যমন্ত্রী রোগীর আত্মীয়ের হাতে আক্রান্ত জুনিয়র ডাক্তার পরিবহ কে এখনও দেখতে গেলেন না। জুনিয়র ডাক্তাদের আন্দোলনের প্রথম দিন থেকে মুখ্যমন্ত্রীকে দেখতে আসার দাবি জানিয়ে এসেছে। এ দিন সকাল থেকে টিভির পরদায় ভেসে ওঠে পরিবহকে মল্লিকবাজারের বেসরকারি হাসপাতালে দেখতে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে বেলা গড়াতেই সমস্ত পরিকল্পনা বদলে নবান্নে চলে আসেন। তিনি না গেলেও তাঁর পরিবর্তে রাজ্যের স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যর যাবার কথা।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সবসময় সাধারণ মানুষের পাশে থাকেন। বিভিন্ন সময় সে সবের উদাহরণ পশ্চিমবঙ্গবাসী বহুবার পেয়েছে। রানি রাসমণি অ্যাভিনিউয়ে দুর্ঘটনায় আহত এক যুবককে নিজের কনভয়ের গাড়িতে চাপিয়ে হাসপাতালে পাঠিয়েছিলেন। বামেদের নবান্ন অভিযানে ইটের ঘায়ে আহত হয় ২০ জন পুলিশকর্মী। আহত পুলিশকর্মীদের দেখতে এসএসকেএমে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু এমন একটি উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রী থেকে গেলেন মমতাহীন অন্তত এমনটাই অভিযোগ।

হাওড়া ডোমজুড়ের বাসিন্দা জুনিয়র ডাক্তার পরিবহ সহ মোট সাতজনের উপর নীলরতন হাসপাতালে আক্রমণ করে রোগীর আত্মীয় পরিজন। যার জেরে আন্দোলন দানা বাঁধে। চিকিৎসা পরিষেবা লাটে ওঠার জোগাড়। দু’দিন আগে এসএসকেএমে মুখ্যমন্ত্রী জুনিয়র ডাক্তারদের চার ঘন্টার মধ্যে কাজে যোগ দেবার সময় দেয়। যদিও জুনিয়র ডাক্তাররা সেকথা রাখেননি। এরপর নবান্নে ডেকেও সাড়া পাননি। ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঘটনায় মুখ খোলেন।

দেশের চিকিৎসকরাও প্রতিবাদ জানাচ্ছে। এ সবে অনেকটাই প্রভাব পড়েছে মুখ্যমন্ত্রীর উপর। যার ফলস্বরুপ মুখ্যমন্ত্রী পরিবহকে দেখতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত থেকে পিছিয়ে এসেছেন বলে চিকিৎসকদের একাংশের মত। এ দিন না গেলেও আগামীকাল দেখতে যাবার সম্ভাবনা থাকছে বলে সূত্রের খবর।

এছাড়াও চেক করুন

আমতার ছোটপোলে দুর্ঘটনার ২৪ ঘন্টার মধ্যে প্রশাসনের একাধিক ব্যবস্থা গ্রহণ

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ, হাওড়াঃ দুর্ঘটনা ঘটলে তবে টনক নড়ে প্রশাসনের। প্রবাদটি আরও একবার প্রমাণিত …

Leave a Reply

Your email address will not be published.