Breaking News
Home >> Breaking News >> তোমাদের ছুটি আমাদের ছুটি নেই, জৈষ্ঠ্য-এর প্রবল দাবদাহে চলছে আইসিডিএস স্কুল

তোমাদের ছুটি আমাদের ছুটি নেই, জৈষ্ঠ্য-এর প্রবল দাবদাহে চলছে আইসিডিএস স্কুল


কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ, হাওড়া:

তোমার ছুটি নীল আকাশে,
তোমার ছুটি মাঠে,
তোমার ছুটি থইহারা ঐ
দিঘির ঘাটে ঘাটে।

স্কুলের দেওয়ালে ঝোলান পাতায় লেখা রয়েছে রবিঠাকুরের কথাগুলো। পাশে ব্ল্যাকবোর্ডে বড় বড় করে লেখা অ, আ। ওরা খুদে পড়ুয়া। সবেমাত্র অ এরপরে আ বলতে শিখেছে। কেউ আবার এক এ চন্দ্র দুই এ পক্ষ বলছে। সকাল সাতটার সময় চলে এসেছে স্কুলে। দাদা-দিদিদের ছুটি পড়লেও ওদের জন্য নিয়ম কঠিন। গরমের দিনেও চলছে চার ঘন্টার পুরো ক্লাস। স্কুলের পাশে ছোট রান্নাঘরে গনগনে আগুনে চলছে ডিমে-আলু রান্না। পাশে বড় হাঁড়িতে চাপা দেওয়া গরম ভাত। দিদিমণি সুর করে বলছেন আকাশ জুড়ে মেঘ করেছে. সুয্যি গেছে পাটে আর ওরা সেই সুর ধরে বাকিটা বলছে।

এপ্রিলের মাঝামাঝি থেকে প্রবল দাবদাহ ঘরের বাইরে বেরনো মুশকিল। সঙ্গে যুক্ত হয়েছিল ফণীর আশঙ্কা। যে কারণে মে মাসের ৩ তারিখ থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত রাজ্যে স্কুলে ছুটি ঘোষণা করেছে স্কুল শিক্ষা দফতর। এরপরেও গ্রামীণ এলাকায় অনেক জায়গায় বেসরকারি স্কুল খোলা থাকলেও শুক্রবার থেকে গ্রীষ্মের ছুটি ঘোষণা করে দেওয়া হয়। কিন্তু এমন গরমেও ওদের ছুটি দিল না দিদিমণিরা। ছোটছোট শিশুদের নিয়ে টিফিনের ঝোলা হাতে মায়েরা স্কুলে থেকে বাড়ি নিয়ে যাচ্ছে। প্রতীমা রায়ের কথায়, কষ্ট তো হচ্ছে কিন্তু কি করি। স্কুল খোলা থাকলে বাড়িতে রাখি না। শিশুবেলা থেকে নিয়মের মধ্য দিয়ে নিয়ে যেতে হবে। ওরা বড় হয়ে তবে মানুষের মতো মানুষ তৈরি হবে। আর এক মা মৌলিসা কোলের কথায়, বেলা এগারোটার সময় রোদের হলকা ছোটে। আমাদের কষ্ট হচ্ছে ওদের তো আরও বেশি কষ্ট হয়। মুখ লাল হয়ে গেছে।

ওরা আইসিডিএস স্কুলে পড়াশোনা করে। গুটিগুটি পায়ে স্কুল জীবনের প্রথম পাঠশালায় পৌঁছাচ্ছে। কাঁধে বইয়ের ভারি ব্যাগ না থাকলেও ছুটির আনন্দ সকলের কাছেই সহজাত বিষয়। দিনভর খেলাধুলা করবার সুযোগ পেয়ে যায়। কিন্তু দাদা-দিদিদের স্কুলে ছুটি পড়লেও ওদের জন্য নিয়ম ভিন্ন। আমতা ২নং ব্লকের একাধিক গ্রামে দেখা মিলল এই দৃশ্য। সেহাগড়ী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি দু’তলা। প্রাথমিকদের ছুটি থাকলেও চলছে আইসিডিএস স্কুল। বসবার ঘরটি (প্রায় ১৪০ বর্গফুটের)। পলেস্তারা খসা দেওয়ালে ঝোলানো ভারতের ম্যাপ। পশুপাখি, ফলফুল-এর ছবি ঝুলছে। ক্লাস নিচ্ছেন শিখা মান্না। গরমের জন্য ছাত্রছাত্রী কমে গিয়েছে। আগে গড়ে ২৫-২৬ জন আসতো। এখন ওই ২০ জনের মতো আসে। দিদিমণি অসুস্থতার জন্য তিনদিন ছুটি নিয়েছে। তাই একবার রান্না করছি। একবার পড়াচ্ছি। এখন সকাল সাতটা থেকে এগারোটা অবধি ক্লাস হয়। রান্না হচ্ছে ডিম-ভাত-আলু। ছুটি কবে পড়বে জানিনা।

এ বিষয় হাওড়া আইসিডিএস সিডিপিও সব্যসাচী গুই জানান, গ্রীষ্মাবকাশ শুরু হয়ে গেছে আমাদের কাছে একটা অর্ডার এসেছে, প্রত্যেকবছর যেরকম গরম কাল চালু হলে আইসিডিএস সেন্টার গুলোর সময় পরিবর্তন করে দেওয়া হয়। সেইমর্মে এবছর ডিস্ট্রিক ম্যাডামের তরফ থেকে এডিএম স্যর ইস্যু করিয়েছেন। সেটা সিটিও স্যর পাঠিয়েছেন। এখন সকাল সাতটা থেকে এগারোটা করে দেওয়া হয়েছে। প্রত্যেকে কে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে গরমের জন্য কেউ যদি আগে বাড়ি চলে যায় কোন অসুবিধা নেই। আগে তো বাচ্চাদের সুস্থ থাকতে হবে। এছাড়া বাচ্চা না আসলেও তার খাবার দেবার কথাও বলা হয়েছে। এটা সমাজ কল্যাণ দপ্তরের অধীন তাই শিক্ষা দফতরের সঙ্গে এর কোন যোগাযোগ নেই। সমাজ কল্যাণ দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী (স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত) শশী পাঁজার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে মিটিং থাকায় কথা বলা যায়নি।

জয়পুর, বাইনান, খালনা সহ একাধিক এলাকায় চলছে আইসিডিএস স্কুল। খুদে পড়ুয়ারা আসছে ক্লাস করতে। ছোট ছোট চোখে তাকিয়ে রয়েছে দিদিমণির দিকে। ছুটির কিছু সময় আগেই ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে। ওরা মায়ের হাত ধরে বাড়ির পথে এগিয়ে চলেছে। ব্যাগে রাখা বইয়ে অ-তে অজগর আ-তে আম।

এছাড়াও চেক করুন

ফাঁসিদেওয়ার মুণি চা বাগানে গণ বিবাহ অনুষ্ঠানে হাজির পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব

বিশ্বজিৎ সরকার, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, দার্জিলিংঃ শুক্রবার শিলিগুড়ি মহকুমার ফাঁসিদেওয়া ব্লকের মুণি চা বাগানে শ্রীহরি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.