Breaking News
Home >> Breaking News >> কোচবিহারে তৃণমূলের ভাঙনের ইঙ্গিত বিজেপি প্রার্থী নিশীথের মুখে

কোচবিহারে তৃণমূলের ভাঙনের ইঙ্গিত বিজেপি প্রার্থী নিশীথের মুখে

মনিরুল হক, কোচবিহার: তৃনমূল দলের অন্দরে একনায়ক তন্ত্র চলছে। সময় এবং সুযোগের অপেক্ষায় রয়েছে দলের বহু নেতা কর্মী। স্বঘোষিত কিং এর ছত্রছায়া থেকে বেড়িয়ে মুক্ত বায়ু গ্রহণ করতে চাইছে স্বাধীন আকাশে জেলার তৃনমুলের অনেক শীর্ষ নেতা। এরমধ্যে কয়েকজন বিধায়ক রয়েছেন বলে দাবি করলেন কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী নিশীথ প্রামাণিক।

শনিবার জেলার দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে নিশীথ বাবু বলেন, পিস-ভাইপোর প্রাইভেট কোম্পানি এখনও তলানিতে এসে ঠেকেছে। বিজেপি গঙ্গা জলের মতো পবিত্র। সেই গঙ্গায় ডুব দিয়ে নিজে পবিত্র হয়েছি বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। জেলায় তৃনমূলের আরও বড়ো ভাঙ্গনের ইঙ্গিত দিয়ে তিনি আরও বলেন, আমার সাথেও একসময় সমঝোতার চেষ্টা হয়েছিল। আমি দলের ভেতরে থেকে লড়াই করেছি। প্রকৃত কর্মীদের বঞ্চিত করে রাখার চেষ্টা হয় তৃনমূলে। গোটা রাজ্যের সাথে কোচবিহার জেলাতেও পু

লিশি রাজ চলছে বলে মন্তব্য করেন নিশীথ বাবু। তিনি বলেন, পুলিশ দিয়ে ভয় দেখানো হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। বিজেপিতে যারা আসত চাইছে তাঁদের কে মিথ্যে মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে বলে তার অভিযোগ। প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করতে যে অনেকটাই দেরি হয়েছে তাতে বিশেষ ক্ষতি হবে না বিজেপির। গোটা বছর থেকেই কাজ করে বিজেপি। বুথে বুথে কর্মীরা সারা বছরই প্রচার করে বিজেপি। সুতরাং ডিস এডভান্টেজের কোনও কারন নেই। ভোটে জিতে দেশের সেনা বাহিনীতে রাজবংশী যুবকদের নিয়ে নারায়ণী সেনা গঠনের প্রস্তাব কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে রাখা হবে বলে তিনি জানান। কৃষি ও শিল্পের উন্নয়ন করে জেলার অর্থনৈতিক ব্যবস্থাকে চাঙ্গা করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি। এদিকে নিশীথ প্রামাণিকের খাস তালুক ভেটাগুড়িতে সভা করেন জেলা সভাপতি তথা রাজ্যের মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ।

সেই সভাকে কটাক্ষ করে নিশীথ প্রামাণিক বলেন, যেকোনো মানুষ যেকোনো স্থানে সভা সমাবেশ করতে পারে। তবে Z ক্যাটাগরি নিরাপত্তা রক্ষী পাওয়ার আগে কখনো তিনি এইসব অঞ্চলে আসেননি। কারন তিনি সাধারণ মানুষকে ভয় পান। নিরাপত্তার বেষ্টনীতেই আটকে রয়েছেন তার মন্তব্য। এদিনের এই সাংবাদিক সম্মেলনের অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ভারতী জনতা পার্টির প্রাক্তন জেলা সভাপতি হেমচন্দ্র বর্মন, বিজেপি নেতা অশোক মন্ডল, দীপক বর্মন প্রমুখ।
এই সাংবাদিক বৈঠকে দলের জেলা সভানেত্রী মালতী রাভা বলেন, রবিবার থেকেই দলের কেন্দ্রীয় নেতারা কোচবিহারে আসবেন। অরবিন্দ মেনন বাদেও সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ ও প্রধানমন্ত্রীও কোচবিহারে আসতে পারেন বলে জানান মালতী দেবী।

এছাড়াও চেক করুন

শিলিগুড়ি মহকুমার মাদাতি টোলগেটে ২১৫ কেজি গাঁজা সহ গ্রেফতার দুই

বিশ্বজিৎ সরকার, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, দার্জিলিংঃ শনিবার গোপন সূত্রের খবরের ভিত্তিতে শিলিগুড়ি মহকুমার ফাঁসিদেওয়া ব্লকের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.