Breaking News
Home >> Breaking News >> কোচবিহারে বিজেপির বিক্ষোভ চরমে, নিশীথের বদলে প্রার্থী জেলা নেতৃত্বের

কোচবিহারে বিজেপির বিক্ষোভ চরমে, নিশীথের বদলে প্রার্থী জেলা নেতৃত্বের

মনিরুল হক, ‌স্টিং নিউজ, কোচবিহারঃ

কোচবিহার আসনে বিজেপির জয় নিশ্চিত ছিল। কিন্তু নিশীথ প্রামাণিককে প্রার্থী করে জয়ী আসন হারাতে চান না কোচবিহার জেলা বিজেপি নেতৃত্বরা।

কেন্দ্রীয় ও রাজ্য কমিটির মনোনীত প্রার্থী নিশীথ প্রামাণিককের বদলে বিজেপির প্রার্থী পদে জেলা সম্পাদক দীপক বর্মনের নাম প্রস্তাব করার সিদ্ধান্ত নিল বিজেপির কোচবিহার জেলা কমিটি। বিজেপির জেলা কার্যালয়ে বিক্ষুব্ধ কর্মী-সমর্থকরা ব্যাপক ভাঙচুর করেন। তার পর বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে বৈঠকে বসে জেলা বিজেপি নেতৃত্ব। এদিন ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জেলার সভানেত্রী, সহ সভাপতি, জেলা সম্পাদক ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যরাও।

ওই বৈঠকের পর কোচবিহার জেলার বিজেপি সভানেত্রী মালতি রাভা বলেন, ওই বৈঠকে প্রার্থী পদের জন্য দলীয় ভাবে দীপক বর্মনের নাম প্রস্তাব করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। শুক্রবারই প্রার্থী পদের জন্য মনোনয়নপত্র তুলবেন দীপক বর্মন। বিষয়টি রাজ্য ও কেন্দ্রীয় নেতাদের জানানো হবে বলেও জেলা কমিটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
জানা গেছে, এদিন প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পর তাদের দলীয় কার্যালয়য়ে ভাঙচুর করেন কর্মী সমর্থকরা। তাদের দাবী, কেন তৃণমূলের ‘ছাঁটাই’ নেতাকে বিজেপির প্রার্থী করা হল, তা নিয়ে দলীয় কার্যালয়েই বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন কর্মী সমর্থকরা। গণ ইস্তফার হুমকি দেন জেলা নেতাদের। নিশীথ প্রামাণিককে মানছে না দলের নেতাদের একাংশ। এরপরই বৈঠক বসে। দীপক বর্মনের পাল্টা মনোনয়ন পেশের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
যদিও এবিষয়ে কোচবিহার জেলার মনোনীত বিজেপি প্রার্থী নিশীথ প্রামাণিককে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয় নি। হয়তো তার কাছে এই বিক্ষোভের খবর পৌঁছে গেছেন, পেয়েছেন। সুত্রের খবর তিনি এখনও দিল্লিতে রয়েছেন। আজ শুক্রবার তার কোচবিহারে পৌঁছনোর কথা।
প্রসঙ্গত, গত বছর ৭ ডিসেম্বর তৃণমূল যুব কংগ্রেসের কোচবিহার জেলার সাধারণ সম্পাদক নিশীথ প্রামাণিককে বহিষ্কার করার কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় জানান কোচবিহার যুব তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি ও সাংসদ পার্থ প্রতিম রায়। জানা গেছে, ৭ ডিসেম্বর কোচবিহারের ঝিনাইডাঙ্গায় বিজেপির গণতন্ত্র বাঁচাও যাত্রা শুরু হওয়ার কথা ছিল। ওই যাত্রার সূচনা করতে আসার কথা ছিল বিজেপির সর্ব ভারতীয় সভাপতি আমিত শাহের। যদিও পরে ওই যাত্রা শুরু না হলেও একটি সভা করে বিজেপি। ওই সভায় ব্যাপক জমায়েত করে বিজেপি। ওই জমায়েতের পিছনে নিশীথ প্রামানিকের হাত রয়েছে বলে দাবী করেন জেলার আনেক তৃণমূল কংগ্রেস নেতারা। এরপরেই ওইদিন সন্ধ্যায় নিশীথ প্রামানিককে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। তবে, নিশীথ প্রামানিককের বিজেপিতে যোগ দেওয়া নিয়ে জেলা জুড়ে রাজনৈতিক মহলে জল্পনা তৈরি হয়েছে। আনুষ্ঠানিক ভাবে বিজেপিতে যোগ দিলেন বহিষ্কৃত তৃণমূল যুব নেতা নিশীথ প্রামাণিক। আজ দিল্লীতে বিজেপির সর্ব ভারতীয় সাধারণ সম্পাদক কৈলাস বিজয় বর্গী দলীয় পতাকা তুলে দেন নিশীথ প্রামানিকের হাতে। সেখানে বাকিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গ বিজেপির মুকুল রায়, রুপা গাঙ্গুলি সহ আরও বেশ কয়েকজন নেতৃত্ব। গত পঞ্চায়েত নির্বাচন থেকে কোচবিহারের রাজনীতিতে উঠে আসেন তৎকালীন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের কোচবিহার জেলা সাধারণ সম্পাদক নিশীথ প্রামাণিক। দিনহাটার ভেটাগুড়ির বাসিন্দা নিশীথ খুব অল্প সময়ের মধ্যে জেলার যুবদের একাংশের মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন। কিন্তু কোচবিহারের দিনহাটায় তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলে বারবার নিশীথ প্রামানিকের নাম। কিন্তু বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর তিনি একদিন কোচবিহারে আসেন নি বা জেলার বিজেপি নেতা কর্মী-সমর্থকদের সাথে কোন যোগাযোগ রাখেন নি। তাই বিজেপি জেলা নেতৃত্ব ও কর্মী-সমর্থরা নিশীথ প্রামাণিককে কোচবিহার জেলার প্রার্থী হিসেবে মেনে নিতে পারচ্ছে

এছাড়াও চেক করুন

শিলিগুড়ি মহকুমার মাদাতি টোলগেটে ২১৫ কেজি গাঁজা সহ গ্রেফতার দুই

বিশ্বজিৎ সরকার, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, দার্জিলিংঃ শনিবার গোপন সূত্রের খবরের ভিত্তিতে শিলিগুড়ি মহকুমার ফাঁসিদেওয়া ব্লকের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.