Breaking News
Home >> Breaking News >> ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে কি অর্জুন বাণে বিদ্ধ হতে চলেছেন দীনেশ ত্রিবেদী !

ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে কি অর্জুন বাণে বিদ্ধ হতে চলেছেন দীনেশ ত্রিবেদী !

সৈকত গাঙ্গুলী, ব্যারাকপুর: ২৪ ঘন্টার মধ্যেই ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের সমীকরণটা কেমন যেন একটা উল্টো পাল্টা হিসেব কষতে শুরু করেছে, এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। কারণ একথা অনস্বীকার্য যে, একদা তৃণমূলের দোর্দন্ডপ্রতাপ নেতা অর্জুন সিং এই ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলে সেই বাম আমল থেকে তৃণমূলের ঝান্ডা ধরে রেখেছিল। এবং প্রচুর ঘাত প্রতিঘাতের সাক্ষী রয়েছেন তিনি। সেখান থেকে বাম শাসনকে হটিয়ে এখানে তৃণমূলের শাসন কায়েমও হয়েছে।

কিন্তু সেই অর্জুন সিং আজ গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়ে শিল্পাঞ্চলের তৃণমূল শিবিরে একটা চিন্তার ভাঁজ ফেলে দিল। কারণ দলীয় কর্মীরা জানে কিভাবে একটার পর একটা নির্বাচনে তিনি সকাল থেকে সারাদিন ধরে দলের হয়ে নির্বাচন করিয়েছিলেন। যদিও প্রকাশ্যে কেউ এই কথা স্বীকার করছেন না। তৃণমূলের লোকজন তাকেও গদ্দার, লোভী এইসব বলে আখ্যা দিতে শুরু করেছেন।

অন্যদিকে দীনেশ ত্রিবেদীর মতো একজন উচ্চ শিক্ষিত, নম্র ভদ্র লোকের কি তাহলে কোনো প্রভাব নেই শিল্পাঞ্চলে। তিনিও তো দুবারের জয়ী সাংসদ। মানুষের ভোটে জিতেছেন। অর্জুন না থাকলে কি এই কেন্দ্র থেকে তার জেতা টা অসম্ভব? প্রকাশ্যে এইসব কথার কোনো মূল্য দিতে নারাজ দীনেশ ত্রিবেদী থেকে তৃণমূলের কেউ। দীনেশ ত্রিবেদীর বক্তব্য, “আমরা এটুকু জানি, মানুষ আমাদেরকে দেখে ভোট দেয় না, মানুষ ভোট দেয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখে। আর পশ্চিমবঙ্গে তার শাসনকালে মানুষের জন্য যা কাজ তিনি করেছেন, এবং করে চলেছেন সেটা দেখেই মানুষ তৃণমূলকে ভোট দেবে। এখানকার মানুষ অনেক ভালো বোঝে। কেউ দলে থাকল কি না থাকল তাতে আমাদের দলের কিছু এসে যায়না। আমি শুধু যিনি(অর্জুন সিং কে) অন্য দলে গেছেন , তাকে শুভেচ্ছা দিতে চাই।

অন্যদিকে গতকাল বীজপুরের বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়ও গতকাল সাংবাদিক বৈঠক করে, তৃণমূলে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেছেন। তিনি দাবি করছেন, এবারের নির্বাচনে দীনেশ ত্রিবেদী গতবারের থেকেও বেশি ভোটে জিতবেন। এবং দল যদি তাকে দায়িত্ব দেয় এবং ভরসা রাখে, ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলের ৭টি বিধানসভার মধ্যে তার বিধানসভা বীজপুর থেকে ৫০ হাজারেরও বেশি ভোটে দীনেশ ত্রিবেদীকে লিড দেবেন।

তৃণমূলের যুবরাজ অভিষেকের বক্তব্যেও একই আত্মবিশ্বাস শোনা গেল, ” দীনেশ ত্রিবেদী এবার ২ লাখেরও বেশি ভোটে জিতবে।”

অর্থাৎ অর্জুন সিংএর দল থেকে চলে গিয়ে বিরোধী শিবিরে যোগদানের বিষয়টিকে কেউ প্রকাশ্যে আমল দিতে নারাজ। কিন্তু এবারের ব্যারাকপুর কেন্দ্রে সব হিসেব নিকেশ বদলাতে পারে এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। তবে এখন প্রশ্ন এই কেন্দ্রে জয় হাসিল করতে কি দীনেশ ত্রিবেদীর বিপক্ষে প্রার্থী হিসেবে অর্জুন সিং এর নামই ঘোষণা করতে চলেছে গেরুয়া শিবির।

যেটাই হবে সেটা তো সময় উত্তর দেবে, কিন্তু সাধারণ মানুষের মধ্যে এখন একটাই প্রশ্ন ঘুরে বেড়াচ্ছে, ” ব্যারাকপুর কেন্দ্রে কি অর্জুন বাণে বিদ্ধ হতে চলেছেন দীনেশ?”

এছাড়াও চেক করুন

বিনপুরের শুকজোড় গ্রামের রাস্তা বেহাল দশা, উদাসীন প্রশাসন

স্টিং নিউজ সার্ভিস, ঝাড়গ্রামঃ ভোটে আসে ভোট যায়, বয়ে যায় হাজারো প্রতিশ্রুতির বন্যা। কিন্তু ভোট …

Leave a Reply

Your email address will not be published.