Breaking News
Home >> Breaking News >> বিজেপি তে নাম লেখানো অর্জুন সিং কে ব্যারাকপুর নয়তো হাওড়ায় প্রার্থী করবার জোড়াল সম্ভাবনা

বিজেপি তে নাম লেখানো অর্জুন সিং কে ব্যারাকপুর নয়তো হাওড়ায় প্রার্থী করবার জোড়াল সম্ভাবনা

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, হাওড়াঃ ব্যারাকপুর অথবা হাওড়া এই দুই কেন্দ্রের যে কোন একটি থেকে দাঁড় করানো হতে পারে সদ্য বিজেপি তে নাম লেখানো তৃণমূল কংগ্রেসের ৪ বারের বিধায়ক অর্জুন সিং। বৃহস্পতিবার বিজেপিতে নাম লেখাবার পর থেকে এই সম্ভাবনা ঘোরাফেরা করছে রাজনৈতিক মহলে।

ভাটপাড়ার তৃণমূল বিধায়ক অর্জুন সিং দীর্ঘ সময় তৃণমূলের সঙ্গে রয়েছেন। ৪ বারের বিধায়ক। রাজ্যে সারদা, রোজভ্যালি, নারদার মতো আর্থিক কেলেঙ্কারির মাঝেও নিজেকে স্বচ্ছ ভাবমূর্তি পরিব্রাজক করে রেখেছেন। এমন একটি প্রাজ্ঞ নেতার দলত্যাগ করাটা দলের কাছে ভারসাম্য বজায় রাখা মুশকিল বলেই রাজনৈতিক মতাদর্শ দেওয়া মানুষদের মত।

তবে এই সুযোগ টাকে কাজে লাগিয়ে নিতে চলেছে বঙ্গ বিজেপি। অর্জুন সিং-এর মতো নেতাকে এমন একটি কেন্দ্রে প্রার্থী করানো হবে যেখানে স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে জয়লাভ করতে পারেন। এইক্ষেত্রে নাম উঠে আসছে ব্যারাকপুর কেন্দ্রের পাশাপাশি হাওড়া সদর আসনটিতে।

বিজেপি সূত্রে জানা গেছে, হাওড়া কেন্দ্রে অর্জুন সিং কে প্রার্থী করবার সুবিধা দুটি রয়েছে। প্রথমত হাওড়া সদর কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী করেছে খেলোয়াড় প্রসূন ব্যানার্জি কে। মঙ্গলবার কালীঘাটে নাম প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গে ব্যান্ড, তাসা আবীর নিয়ে মিছিল করেছে প্রসূন সমর্থকরা। কিন্তু প্রসূন ব্যানার্জি কে এর আগে নারদা তদন্তে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। আগামী দিনেও যে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হতে পারে।

এমনটাই ব্যক্ত করেছেন প্রসূন ব্যানার্জি নিজে। দ্বিতীয়ত হাওড়া সদরে একটা ভালো অঙ্কের অবাঙালী ভোটার রয়েছে। বিশেষ করে হাওড়া শহরে হিন্দি ভাষীদের বসবাস। সেখানে অর্জুন সিং এর স্বচ্ছ দৃষ্টিভঙ্গি কাজে লাগবে। এসব বিবেচ্য করে হাওড়া সদর কেন্দ্রে অর্জুন সিং কে প্রার্থী করবার একটা প্রয়াস শুরু করেছে জেলা নেতৃত্ব। তবে সবটাই কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব ঠিক করবে।

যদিও তৃণমূল কংগ্রেস এসবের পাত্তা দিচ্ছে না। হাওড়া জেলা তৃণমূলের এক নেতার কথায়, হাওড়া দুটি আসনে আমাদের জয় নিশ্চিত। ভোটের ব্যবধান থাকবে দ্বিগুণ। হাওড়ার ভূমিপুত্র তথা প্রাক্তন খেলোয়াড় প্রসূন ব্যানার্জি একাধিক উন্নয়নমূলক কাজকর্ম করেছেন যা কল্পনাতীত। হাওড়া শহর আজ কলকাতার সঙ্গে পাল্লা দিতে পারে। খোদ মুখ্যমন্ত্রীও একথা বলেছেন।

এছাড়া হাওড়ায় ফুটবল স্টেডিয়াম ও স্পোর্টস সিটিও কিছু সময়ের মধ্যেই তৈরি হয়ে যাবে। যা হাওড়াকে আরও উপরে তুলে আনবে। কে একজন দল বদলে বিজেপিতে গিয়ে দু চার কথা বলে দিল সেটা মাথায় নিয়ে দল চলে না। রাজ্যে ৪২টি কেন্দ্রে একজন প্রার্থী তিনি তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওঁনার হাত মাথা থেকে সরে গেলে রাজনীতির লড়াই থেকে সন্ন্যাস নিতে হবে।

এছাড়াও চেক করুন

বিনপুরের শুকজোড় গ্রামের রাস্তা বেহাল দশা, উদাসীন প্রশাসন

স্টিং নিউজ সার্ভিস, ঝাড়গ্রামঃ ভোটে আসে ভোট যায়, বয়ে যায় হাজারো প্রতিশ্রুতির বন্যা। কিন্তু ভোট …

Leave a Reply

Your email address will not be published.