Breaking News
Home >> Breaking News >> তৃণমূল দলে আবার নিজের অবস্থান স্পষ্ট করলেন মুকুল পুত্র শুভ্রাংশু রায়

তৃণমূল দলে আবার নিজের অবস্থান স্পষ্ট করলেন মুকুল পুত্র শুভ্রাংশু রায়

অনুপম সিংহ রায় : একদিকে ১৪ই মার্চ সারাদিন যখন মানুষের চোখ টিভির পর্দা থেকে নড়ছিলোনা, একটাই খবরের সত্যতা যাচাইয়ের জন্য, যে ভাটপাড়ার তৃণমূল বিধায়ক অর্জুন সিং যোগ দিতে চলেছেন বিজেপিতে। ঠিক সেই দিনই আবার তৃণমূলে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করার জন্য বাড়ির পাশে ওয়ার্ড অফিসে একটা প্রেস মিট ডেকে বসে মুকুল পুত্র তথা বীজপুরের তৃণমূল বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়।

শুভ্রাংশুর এদিনের প্রেস মিট নিয়ে জল্পনা ছিল তুঙ্গে। আর সেই কারণেই বোধ হয় দেশের প্রায় সব সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিরা শুভ্রাংশুর একডাকে এদিন যথাস্থানে উপস্থিত হয়ে ছিলেন। সবাই ভেবেছিলেন একদিকে যখন দিল্লিতে মুকুল রায়ের হাত ধরে অর্জুন পুরস্কার হাসিল করল বিজেপি, আবার মুকুল রায় স্বয়ং বলছেন, ” পিকচার অভি বাকি হে, এতো সিরফ ট্রেলর থা”। সেখানে কি যে হতে চলেছে আজকের প্রেস মিটে সেটা নিয়ে তো জল্পনা হবেই। এমনকি শুভ্রাংশু নিজেও এদিনের বক্তব্যের শুরুতেই একটা কথা দিয়ে শুরু করেছেন, ” আমার কাছে আজকে প্রচুর ফোন এসেছে, আপনি কি করবেন? এই প্রশ্নের উত্তর দেব বলেই আজ আপনাদের সকলকে এক জায়গায় ডেকেছি।”

বক্তব্যের শুরুতেই বললেন,” আমি এখনও তৃণমূল দলেই আছি, আগামীতে তৃণমূল দলটাই করব, আমার নেত্রী একজনই, তিনি হলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।”

কিন্তু প্রশ্ন হল, আজকে দিল্লিতে যা হল, যেভাবে অর্জুন সিং এর মতো নেতা, যিনি কিনা একসময় এই ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলে একাই এই দলটাকে টিকিয়ে রাখার জন্য লড়ে গেছিলেন, যিনি কিনা গতকাল পর্য্যন্ত মমতার প্রতি আনুগত্য দেখিয়েছিলেন, তাকেও হার মানতে হল মুকুল ম্যাজিকের কাছে। এই ভাবে কি একের পর এক তৃণমূল দলটা তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়বে? সবাইকে কি মুকুল রায় নিজের দলে টেনে নেবেন? ঠিক এই প্রশ্নটাই যখন শুভ্রাংশুর দিকে এদিন ছুড়ে দেওয়া হল, তার সোজাসাপটা উত্তর ” যদি কখনও আমার কাছে এমন প্রস্তাব আসে, তার জবাব আমার কাছে তৈরি আছে। আমি এখনও বলছি দল যদি আমার উপর ভরসা করে, আমি আগের বার আমাদের প্রার্থী দীনেশ ত্রিবেদীকে বীজপুর থেকে যত ভোটে লিড দিয়েছি, তার থেকে বেশি ভোটে এবার লিড দেব। যে চলে গেছে তাকে নিয়ে আলোচনা না করাই ভালো।”

তবে কি পিতা পুত্রের সম্পর্ক ঠিক জায়গায় নেই? নাহলে যে মুকুল রায় কিনা বলে বলে তাবড় তাবড় নেতা নেত্রীকে তৃণমূল দল থেকে বিজেপিতে যোগদান করিয়ে ফেলছেন, সেখানে নিজের ছেলেকে কেন বিজেপিতে নিতে পারছেন না? এর উত্তর শুভ্রাংশু এদিন নিজেই দিলেন, ” হ্যাঁ, বাবার সাথে আমার রোজ কথা হয়, তবে রাজনীতির বিষয়ে নয়। একজন ছেলে হিসেবে বাবার যেটুকু খোঁজ নেওয়া কর্তব্য সেটা নি। কিন্তু এর বাইরে নয়। আর আমি এর আগেও বলেছি আমার নেত্রী একজনই, তিনি হলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি যদি মনে করেন ভবিষ্যতে আমার জায়গায় অন্য কাউকে বীজপুরে টিকিট দেবে, আমি তার হয়েও প্রচার করব, তৃণমূলের একজন সাধারণ কর্মী হিসেবে।”

এছাড়াও চেক করুন

বিনপুরের শুকজোড় গ্রামের রাস্তা বেহাল দশা, উদাসীন প্রশাসন

স্টিং নিউজ সার্ভিস, ঝাড়গ্রামঃ ভোটে আসে ভোট যায়, বয়ে যায় হাজারো প্রতিশ্রুতির বন্যা। কিন্তু ভোট …

Leave a Reply

Your email address will not be published.