Breaking News
Home >> Breaking News >> ৭০০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করল নদিয়ার ধানতলা থানার পুলিশ, গ্রেপ্তার বাবা-ছেলে

৭০০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করল নদিয়ার ধানতলা থানার পুলিশ, গ্রেপ্তার বাবা-ছেলে

স্টিং নিউজ সার্ভিসঃ  পরিত্যক্ত একটি বাড়িতে হানা একই সঙ্গে নেশার সামগ্রী হিসাবে ব্যাবহৃত ৭০০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করল নদিয়ার ধানতলা থানার পুলিশ। বাঙ্গলাদেশে পাচারের জন্য ওই ফেনসিডিল জড়ো করা হয়েছিল বলে পুলিশের ধারণা । সেইসঙ্গে পুলিশ দুজনকে গ্রেফতারও করেছে। পুলিশ জানিয়েছে , ধৃত দুজনের নাম স্বপন সাহা (৫০) ও মিঠুন সাহা (২৬)। সম্পর্কে দুজনে বাবা ও ছেলে। তাদের বাড়ি ওই থানার আড়ংঘাটা দক্ষিণ গ্রামে ।

বৃহস্পতিবার তাদের রানাঘাট মহকুমা আদালতে তোলা হলে বাবা স্বপন সাহাকে পাঁচদিনের জন্য পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। আর ছেলেকে ১৪ দিনের জন্য জেল হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, বাবা-ছেলে  দুজনেই দীর্ঘদিন ধরে যুক্ত এই কাজে । আড়ংঘাটা দক্ষিণ গ্রামে দুজনে ফেনসিডিলের বোতল জড়ো করত।  বাজার থেকে ১৪০ টাকা করে প্রতি বোতল কিনে বোতল প্রতি ১৭৫ টাকা করে বিক্রি করত। বাংলাদেশে প্রতি বোতল ১৪০০ টাকা করেও বিক্রি হয় ।

পাচারের সুবিধার জন্য তারা ২৫  টি বোতল একটি প্যাকেটে বা ব্যাগে প্যাক করত। সীমানার কাঁটাতারের বেড়ার এপার থেকে ওপারে ফেলা তাদের সুবিধা হয় এতে। কাছেই রয়েছে দত্তপুলিয়া সীমান্ত । তাই পাচারের জন্য ফেনসিডিলকেই তারা লাভজনক সামগ্রী হিসাবে বেছে নিয়েছিল।

যদিও কোথা থেকে কীভাবে  যোগাড় করে কোথায় কীভাবে  নেশার সামগ্রী ফেনসিডিল পাচার করা হত, তা জানার পুলিশ স্বপন সাহাকে জিজ্ঞাসাবাদ চালিয়ে যাচ্ছে। এর আগে ১৩ সেপ্টেম্বর ধানতলা থানার পুলিশই ওই থানার হোসেনপুর এলাকা থেকে ১০০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করেছিল।  গ্রেফতার করেছিল রাজাপুর এলাকার বাসিন্দা রফা মন্ডল নামে এক যুবককে।

উল্লেখ্য, নদিয়ার ধানতলা থানায় মুকুন্দ চক্রবর্তী ওসি হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করার পরে খুব অল্প  সময়ের মধ্যেই ফেনসিডিল উদ্ধারে পর পর দু’বার সাফল্য পেল।

এছাড়াও চেক করুন

জেলাশাসকের দপ্তরে সামনে ৫ দফা দাবিতে বিক্ষোভ গ্রামীন সম্পদ কর্মীদের

নরেশ ভকত, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, বাঁকুড়াঃ আজ দুপুরে বাঁকুড়া হিন্দুহাই স্কুলে জমায়েত হয়ে বাঁকুড়া শহর …

Leave a Reply

Your email address will not be published.