Breaking News
Home >> Breaking News >> বোমা গুলি ছুঁড়ে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ, আতঙ্কে ভণ্ডুল হাট

বোমা গুলি ছুঁড়ে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ, আতঙ্কে ভণ্ডুল হাট

মনিরুল হক, কোচবিহারঃ তৃণমূল কংগ্রেসের দুই গোষ্ঠী মাদার ও যুব সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক বোমাবাজি ও গুলির লড়াইয়ের জেরে ভণ্ডুল হয়ে গেল হাট। আজ সকাল সাড়ে দশ টা নাগাদ দিনহাটা ২ নম্বর ব্লকের নাজিরহাট এলাকায় ওই ঘটনা ঘটেছে। ওই ঘটনায় কোন হতাহতের খবর নেই। তবে ওই ঘটনার জেরে সমস্ত দোকানপাট বন্ধ করে দিয়ে ক্রেতা বিক্রেতারা আতঙ্কে পালাতে শুরু করে। সেখানকার একটি স্কুলও বন্ধ হয়ে যায় বলে জানা গিয়েছে।ঘটনার খবর পেয়ে বিশাল পুলিশ বাহিনী সেখানে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

মাদার গোষ্ঠীর নেতা হিসেবে পরিচিত নাজিরহাট তৃণমূল অঞ্চল কমিটির সভাপতি সুধীর বিশ্বাস বলেন, “নাজিরহাট সকাল সকাল শুরু হয়। আমরা হাটে এসে চায়ের দোকানে আড্ডা দিচ্ছিলাম, তখন যুবর নাম করে একদল দুষ্কৃতী এসে আমাদের দলীয় কার্যালয়ের দিকে এগোতে থাকে। খবর পেয়ে আমরা গিয়ে প্রতিরোধ করলে ওরা পালাতে শুরু করে। পালানোর সময় ১০ টি বোমা ছোড়ে। এরমধ্যে দুটি ফাটে নি। এছাড়াও শুন্যে বেশ কয়েক রাউন্ড গুলিও ছোড়া হয়। আমরা পুলিশ ও দলের নেতৃত্বদের জানিয়েছি। কোন ব্যবস্থা না নিলে এবার আমরাই ওই দুষ্কৃতিদের শায়েস্তা করবো।”

দিনহাটা ২ নম্বর ব্লকের তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি আরিফ হোসেন বলেন, “ এর আগেও দিনহাটা ২ নম্বর ব্লকের একাধিক জায়গায় সংঘর্ষের ঘটনা নিয়ে যুব দোষ দেওয়া হয়েছে। আজ নাজিরহাটের ক্ষেত্রেও তাই হল। কিন্তু ওই ব্লকে কোথাও যুব-মাদারের গোষ্ঠী লড়াই নেই। কে বা কারা এভাবে বারবার যুব’র নাম জড়িয়ে দিচ্ছে। দলের নেতারা তা তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করুক।” দিনহাটার এসডিপিও উমেশ জি খণ্ডোয়াল বলেন,“নাজিরহাটে দুটি গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা তৈরি হয়। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে যায়। কোন বোমা ও গুলি ছোঁড়ার খবর নেই। দোকানপাট খুলতে শুরু করেছে।”

পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে থেকেই দিনহাটায় তৃণমূল কংগ্রেসের দুই গোষ্ঠী মাদার ও যুব’র মধ্যে একাধিক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। নির্বাচনের পরেও ওই সংঘর্ষ জারি রয়েছে। তবে নাজিরহাট এলাকায় এই প্রথম প্রাকশ্যে দিনের বেলা হাটের মধ্যে দুই পক্ষের মধ্যে গণ্ডগোলের ঘটনা ঘটল। রাজনৈতিক মহলের ধারণা, পঞ্চায়েত নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে জয়ী সদস্যদের নিয়ে বোর্ড গঠনের জন্য রাজ্য সরকার নোটিশ জারি করতে পারে বলে খবর রয়েছে। নাজিরহাট এলাকায় এখনও পর্যন্ত মাদার গোষ্ঠীর আধিপত্য রয়েছে। আর সেই কারণেই যুব গোষ্ঠী এলাকা দখলের জন্য এদিন হাট চলাকালীন হামলা করে বলে রাজনৈতিক মহলের ধারণা।

আমাদের  STING NEWZ  ইউটিউব চ্যানেলটি সাবসক্রাইব করতে ক্লিক করুন এই লিঙ্কেঃ https://www.youtube.com/c/StingNewz7  আর প্রতি মুহূর্তে পেতে থাকুন ভিডিও খবরের তাজা আপডেট। 

এছাড়াও চেক করুন

স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে কাটোয়ার মেঝিয়ারীতে রক্তদান শিবির ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

গৌরনাথ চক্রবর্ত্তী, কাটোয়া : ৭২তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে কাটোয়া ২নং‌ ব্লক তৃনমূল কংগ্রেসের মেঝিয়ারী শাখার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.