Breaking News
Home >> Breaking News >> সপ্তাহান্তেই দিদির একুশে, মেদিনীপুরে মোদির প্রশ্নের মিলবে ‘রাফ অ্যান্ড টাফ’ জবাব !

সপ্তাহান্তেই দিদির একুশে, মেদিনীপুরে মোদির প্রশ্নের মিলবে ‘রাফ অ্যান্ড টাফ’ জবাব !

ফাইল ফটো

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ করেসপন্ডেন্ট, হাওড়া: সপ্তাহান্তে একুশে। একুশে মানেই শহীদ স্মরণে আপন মরণে, রক্ত ঋণ শোধ কর। সব পথ গিয়ে মিশবে ধৰ্মতলায়। সরগরম হবে রাজপথ। লাখ-লাখ মানুষের সমাগমে স্তব্ধ হবে কল্লোলিনী তিলোত্তমা ! চারিদিকে একটাই ধ্বনি দিদি-দিদি আর দিদি। তবে এবারের একুশে জুলাই অন্যবারের থেকে তুলনামূলক ভাবে প্রাসঙ্গিক বলেই মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ দের একাংশ।

সোমবার রাতের কয়েকঘন্টা আগেই মেদিনীপুর কলেজিয়েট মাঠে সভা শেষ করেছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। শুরুটাই ‘মা-মাটি-মানুষ’ শব্দটা উত্থাপন করে। রাজ্যের তৃণমূল সরকারের শ্লোগান কে পাথেয় করে কার্যত মমতা কে বিদ্ধ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। সিন্ডিকেট বিতর্ক থেকে কলেজ ভর্তিতে তোলবাজির অভিযোগ এমন একাধিক বিষয় নিয়ে বক্তৃতার মধ্য দিয়ে শাসকদলকে কলুষিত করবার চেষ্টা করে গেছেন। বক্তব্যের মধ্য দিয়ে ১৯ এর ভোটের আগে কৃষকদের পাশে থাকবার আপ্রাণ চেষ্টা করে গেছেন প্রধানমন্ত্রী।

কলেজিয়েট মাঠের সমস্ত প্রশ্নের উত্তর একুশের সভা থেকেই মাইক হাতে দিয়ে দেবেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এমনটাই ধারণা। এ দিনের সভার তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় যে কৃষকদের কল্যাণে ছিল সভা। সেই কৃষক ও কর্মীদের মাথার উপর সভা চলাকালীন ভেঙ্গে পড়লো প্যান্ডেলের লোহার ছাউনির একাংশ। আহত হয়েছেন ৯০ জনের মতো। মেদিনীপুর হাসপাতালে আহতদের দেখতে পৌঁছে যান প্রধানমন্ত্রী। যদিও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ঘটনার পরেই টুইট করে আহতদের পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন।

২০১১ সালে কৃষকদের শেষ অবলম্বন ভূমি রক্ষা করেই বিপুলসংখ্যক জয় নিয়ে লালবাড়িতে পা রেখেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার কৃষকদের কল্যাণের কথা বলে তাঁর রাজ্যে এসে প্রধানমন্ত্রীর সভা করাটা কতটা মানতে পেরেছেন তার জবাব যে একুশেই মিলতে চলেছে তা একপ্রকার নিশ্চিত সকলে। আজও দেশের যে কোনো প্রান্তে কৃষকদের কষ্টের চিত্র ধরা পড়লেই আজও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের খোঁজ করেন কৃষকরা হয়তো শেষ অবলম্বন হিসাবেই। এবার তাঁর রাজ্যে এসে মোদি কৃষক কল্যাণের ফাঁকে ১৯ এর ভোটপ্রচার করে গেলেন বলেই মত দিচ্ছেন এমনটাই রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশের ধারণা।

বাকিটা একুশে জুলাইয়ের মঞ্চে দেশের অতিথি, রাজ্যের শহীদদের পরিবার, রাজনৈতিক ব্যক্তি বর্গের মাঝে ও দশ লক্ষ মানুষের মাথার সামনে কেন্দ্রের শাসক দলের ব্যান্ড বাজাবেন মমতা। উঠে আসবে ভুল দেশ চালাবার একাধিক সওয়াল! শ্রমিকের অধিকার, কৃষকের ভূমি রক্ষা, ফসলের দাম, থমকে যাওয়া দেশ বৃদ্ধি, ধুকতে থাকা জিএসটি এমন হাজারো সমস্যা তুলে এনে বিরোধী জোট একাট্টা করবার প্রয়াস এবারের একুশে দেখতে চলেছে একটা কলকাতা বাকিটা ২০১৯ এর আগে গোটা দেশ।

আমাদের  STING NEWZ  ইউটিউব চ্যানেলটি সাবসক্রাইব করতে ক্লিক করুন এই লিঙ্কেঃ https://www.youtube.com/c/StingNewz7  আর প্রতি মুহূর্তে পেতে থাকুন ভিডিও খবরের তাজা আপডেট। 

এছাড়াও চেক করুন

পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটালের পাঁশকুড়া বাসস্ট্যান্ডে লায়ন্স ক্লাবের ক্লক টাওয়ারের উদ্বোধনে  দেব

পশ্চিম মেদিনীপুর: পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটালের পাঁশকুড়া বাসস্ট্যান্ডে লায়ন্স ক্লাবের ক্লক টাওয়ারের উদ্বোধন করতে এসে সাংসদ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.