Breaking News
Home >> Breaking News >> দিনহাটা হাসপাতালে আয়াদের ২৫০ টাকার বেশি না নিতে সতর্ক করলেন উদয়ন গুহ

দিনহাটা হাসপাতালে আয়াদের ২৫০ টাকার বেশি না নিতে সতর্ক করলেন উদয়ন গুহ


মনিরুল হক, কোচবিহারঃ আয়া মাসিরা রোগীদের থেকে বেশি টাকা নিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠতেই দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে গিয়ে পদক্ষেপ নিলেন রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান বিধায়ক উদয়ন গুহ। রোগীদের থেকে বেশি টাকা না নিতে আয়া মাসিদের সতর্ক করেন তিনি। মঙ্গলবার সকালে তিনি দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে গিয়ে আয়াদের নিয়ে আলোচনায় বসেন। এদিন সেখানে রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান বিধায়ক উদয়ন গুহ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত সুপার ডাঃ উজ্জ্বল আচার্য, হাসপাতালের ওয়ার্ড মাষ্টার আব্দুর রসিদ, আয়া ইউনিয়নের পক্ষে গঙ্গা বিশ্বাস ও হাসপাতালের অন্যান্য আধিকারিকরা। রোগীদের আত্মীয় স্বজনের অভিযোগ, এক শিফটে মজুরি ২৫০ টাকা পরিবর্তে অনেকটা বেশি নিচ্ছেন আয়া মাসিরা। এদিন রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান বিধায়ক উদয়ন গুহ আয়া মাসিদের সাফ জানিয়ে দেন, তারা যাতে ২৫০ টাকার বেশি এক টাকাও রোগীদের কাছ থেকে না নেয়। এদিনের এই বৈঠক শেষে রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান বিধায়ক উদয়ন গুহ বলেন,“ হাসপাতালের আয়ারা নির্ধারিত টাকার থেকে বেশি টাকা রোগীদের পরিবারের কাছ থেকে নিচ্ছে বলে তার কাছে অভিযোগ এসেছে। সেই অভিযোগ পেয়েই এদিন আয়াদের সঙ্গে এই বিষয়ে আলোচনার জন্য হাসপাতালে এসেছিলেন তিনি। বেশি টাকা দেওয়া গরিব মানুষের কাছে কষ্ট কর ব্যাপার। সেটা নিয়ে ওদের সাথে আলোচনা করলাম। একটা সামঞ্জস্য টাকা নিয়ে রোগীদের পরিসেবা দিতে হবে। অসামঞ্জস্য টাকা নিয়ে রোগীদের ওপর জুলুম কোনও ভাবে মেনে নেওয়া হবে না বলেও জানান তিনি।”
তিনি আরও বলেন, “হাসপাতাল সুপার কাজের সূত্রে কলকাতা গেছেন। উনি আসলে আয়াদেরকে নিয়ে হাসপাতাল কতৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করে একটা নির্দিষ্ট টাকা ঠিক করা হবে।” দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে ভরতি থাকা রোগীদের পরিবারের সাবিত্রি ঈশোর, আনোরা বিবি, পল্লবী দাস, রুমি সরকারের অভিযোগ, হাসপাতালের আয়ারা তাদের কাছ থেকে ৪২০ টাকা নিচ্ছে। এর আগে আয়ারা ২৫০ টাকা নিত। এখন টাকাটা অনেক বেশি। আমাদের সমস্যায় পরতে হচ্ছে। কিন্তু করার কিছুই নেই।
দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত সুপার ডাঃ উজ্জ্বল আচার্য বলেন, “ আয়া মাসিরা রোগীদের থেকে অনেক বেশি টাকা নিচ্ছেন বলে অভিযোগ পেয়ে রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান বিধায়ক উদয়ন গুহ হাসপাতালে এসেছেন। এদিন আয়া মাসিদের সঙ্গে কথা বলে তাদের সতর্ক করেন উদয়ন বাবু। তিনি আয়া মাসিদের পরিষ্কার জানিয়ে দেন যাতে তারা ২৫০ টাকার বেশি না নেয়। হাসপাতালের সুপার আসলে এই বিষয় নিয়ে আলোচনা করে একটা নির্দিষ্ট মূল্য নির্ধারণ করা হবে।”

loading...

এছাড়াও চেক করুন

বিদেশে কাজে গিয়ে মৃত্যু হল বাংলার দুই যুবকের

স্টিং নিউজ সার্ভিসঃ ভিন রাজ্যে কাজে গিয়ে বাঙালি যুবকের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে ইতিপূর্বে। এবার সেই …

Leave a Reply

Your email address will not be published.