Breaking News
Home >> Breaking News >> বিশ্বকাপ জ্বরে কাহিল ইছাপুরের শিবসঙ্কর পাত্রের পরিবার

বিশ্বকাপ জ্বরে কাহিল ইছাপুরের শিবসঙ্কর পাত্রের পরিবার

সৈকত গঙ্গোপাধ্যায়, ইছাপুর: আর কয়েক দিন পর রাশিয়াতে শুরু হচ্ছে “গ্রেটেস্ট শো ওফ আর্থ” ফিফা বিশ্বকাপ ফুটবল আর এই প্রতিযোগিতায় সকলের নজরে থাকা দল গুলির মধ্যে অন্যতম আর্জেন্টিনার ফুটবল দল এই দল নিয়ে মাতামাতি শুধু যে আর্জেন্টিনায় রয়েছে এমন নয় এই দলের খেলার প্রভাব মনে দাগ কেটেছে দেশটির থেকে কয়েক শো কিলোমিটার দূরের পশ্চিমবঙ্গে ইছাপুর নবাবগঞ্জ এলাকার শিবশঙ্কর পাত্রের পরিবারেও ।
শিবশঙ্কর পাত্র পেশায় চায়ের দোকানদার হলেও নেশায় তিনি একজন অন্ধ ফুটবল ভক্ত আরও একটু ভেঙে বললে তিনি আর্জেন্টিনা এবং সেই দলের নয়নের মনি রিয়নেল মেসির ভক্ত ।
একটা সময় নিজেও ফুটবল খেলতেন এলাকায় নাম ডাকও ছিল খেলার জন্য যথেষ্ট ফুটবল খেলার কারনে বিশ্ব ফুটবলের প্রতি ভালবাসাও ছিল অনেকটাই ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপ এ আর্জেন্তিনা ফুটবল দলের মেগাস্টার ফুটবলের রাজ পুত্র মারাদোনার খেলা দেখে ভালবাসায় পরে যান তার পর থেকে তার হৃদয়ে স্থায়ী ভাবে জায়গা করেনেয় লাটিন আমেরিকার এই দেশটি ।
বয়স বারার সাথে সাথে আর্জেন্টিনার ফুটবল এর প্রতি ভালবাসাও বেড়ে চলে ২০০৯ সালে তিনি নিজের বাড়ি দোকান করে ফেলেন আর্জেন্টিনার জাতীয় পতাকার রঙের এর পর থেকে বাড়ির সমস্ত জীবনই করতে থাকেন আর্জেন্টিনার নীল সাদা রঙের ঘরের দেওয়াল শুধু নয়,দরজা,জানালা, রান্নাঘর,আলমারি, ষ্টেন্ডফ্যান,ঠাকুরের আসন এমনকি তার বাড়িতে থাকা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছবিও নীল সাদা রঙের ।
ঘরের দেওয়াল আলমারি সব জায়গায় রয়েছে মেসির ছবি ।
তিনি তার এই ফুটবলের প্রতি ভালবাসায় সঙ্গে পেয়েছেন তার স্ত্রী ও দুই সন্তানকেও তারা একই সঙ্গে বসে ফুটবল দেখে পুরো পরিবার ।
এলাকার আর্জেন্টিনা প্রেমীরা শিবশঙ্কর বাবুকে সামনে রেখে সবাই মিলে বানিয়েছে আর্জেন্টিনা ফ্যান্স ক্লাব যারা প্রতিবছর মেসির জন্মদিন পালন করে তার সাথে এই সংস্থার তরফে রক্তদান শিবির ,থ্যালাসেমিয়া শিবির সহ বিভিন্ন সমাজ কল্যাণ কাজও করা হয় ।
শিবশঙ্কর বাবুর স্ত্রী স্বপ্না পাত্র বলেন আমি বিয়ের পর এই বাড়িতে এসে দেখতাম খেলা হলে আমার স্বামী দেখে এবং বিশেষ করে আর্জেন্টিনার খেলা হলে সব কাজ বন্ধ করে টিভিতে খেলায় নজর রাখে তখন থেকেই আমিও খেলা দেখতে শুরু করি আমিও এখন আর্জেন্টিনার ভক্ত। শুধু আমার স্হামীই নয় আমরাও এখন আর্জেন্টিনা এবং মেসির অন্ধ ভক্ত মেসি ভালো খেললে আমরা আনন্দ পাই আর খারাপ খেললে দুঃখ ।
স্বপ্না দেবী আরও জানান আমরা চাই এই বছর বিশ্বকাপ জয়ী যেনো আর্জেন্টিনা হয় এবং বিশ্ব সেরা ফুটবলার যেনো মেসিই হয় ।
এখন সময়ই বলবে কার হাতে উঠবে এবারের বিশ্বকাপ এর ট্রফি ১৯৮৬ সালের ইতিহাস আবারও কি হবে নতুন করে লেখা?

আমাদের  STING NEWZ  ইউটিউব চ্যানেলটি সাবসক্রাইব করতে ক্লিক করুন এই লিঙ্কেঃ https://www.youtube.com/c/StingNewz7  আর প্রতি মুহূর্তে পেতে থাকুন ভিডিও খবরের তাজা আপডেট। 

এছাড়াও চেক করুন

পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটালের পাঁশকুড়া বাসস্ট্যান্ডে লায়ন্স ক্লাবের ক্লক টাওয়ারের উদ্বোধনে  দেব

পশ্চিম মেদিনীপুর: পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটালের পাঁশকুড়া বাসস্ট্যান্ডে লায়ন্স ক্লাবের ক্লক টাওয়ারের উদ্বোধন করতে এসে সাংসদ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.