Breaking News
Home >> Breaking News >> অভাবের তাড়নায় নিজের শিশুকে বিক্রি এক মহিলার, চাঞ্চল্য কোচবিহারে

অভাবের তাড়নায় নিজের শিশুকে বিক্রি এক মহিলার, চাঞ্চল্য কোচবিহারে

মনিরুল হক, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, কোচবিহারঃ অভাবের তাড়নায় নিজের তিনমাসের শিশুকন্যাকে বিক্রি করে দিলেন এক মহিলা। ঘটনাটি ঘটেছে কোচবিহার শহরের সাহিত্যসভা সংলগ্ন বাঁধের পাড় এলাকায়। ওই ঘটনা জানাজানি হতেই তোলপাড় শুরু হয় কোচবিহারে।

জানা গেছে, শিশু কন্যার মায়ের নাম লক্ষ্মী রাউত। তার দাবি, আরও ২ টি সন্তান রয়েছে। তিনি স্কুলে রান্নার কাজ করেন। তার স্বামী রোজগার করেন না। সংসারে অভাব রয়েছে।

তাই সন্তানকে বিক্রি করে দিয়েছেন তিনি।এর বিনিময়ে তিনি ২০ হাজার টাকা পেয়েছেন। তার অভিযোগ, যে মহিলা এই শিশু বিক্রির ঘটনায় মধ্যস্থতা করেছেন, তিনি গ্রাহকের কাছে ৫০ হাজার টাকা নিয়েছেন। কিন্তু তাকে ২০ হাজার টাকা দিয়ে বাকিটা আত্মসাৎ করেছেন। এই নিয়ে ওই মহিলার সঙ্গে শিশুর মায়ের বচসার পরেই এদিন বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে।

শিশু বিক্রি ঘটনায় মধ্যস্থতাকারী ওই মহিলা এদিন একটি নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্প দেখান। সেই স্ট্যাম্প পেপারে ওই কন্যা শিশুর গ্রহীতা হিসেবে অরিন্দম ঘোষ নামে জনৈক ব্যক্তির নাম স্বাক্ষর করা দেখা গিয়েছে। এদিন এই শিশু বিক্রির ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়তেই বিভিন্ন মহলে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। এদিন বিকেলে ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান কোতয়ালি থানার পুলিশ ও জেলা শিশু সুরক্ষা আধিকারিক।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কোচবিহারেরই এক নিঃসন্তান দম্পতির কাছে ৫০ হাজার টাকায় শিশুটি বিক্রি হয়ে গিয়েছে। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি। স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে তদন্ত করছে কোতুয়ালি থানার পুলিশ। শিশুটিকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

জেলা শিশু সুরক্ষা আধিকারিক স্নেহাশিস চৌধুরী বলেন, “শিশু বিক্রির অভিযোগ আমরা লিখিত ভাবে পেয়েছি। এভাবে শিশু বিক্রি বেআইনি কাজ। আমরা শিশুটিকে উদ্ধার করার চেষ্টা করছি। তারপর আইনত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

মধ্যস্থতাকারী মহিলা
loading...

এছাড়াও চেক করুন

বেসরকারি ব্যাংকের নাম করে লোন দেওয়ার নামে প্রতারণার শিকার হালিশহরের টোটো চালক

সৈকত গাঙ্গুলী, ব্যারাকপুর: জেঠিয়া পূর্ব পাড়ার বাসিন্দা রাজু বসু পেশায় টোটো চালক। তার টোটোতে মাস দুয়েক …

Leave a Reply

Your email address will not be published.