Breaking News
Home >> Breaking News >> স্ত্রী-সন্তানকে রেখে শাশুড়িকে নিয়ে পালাল জামাই !!!

স্ত্রী-সন্তানকে রেখে শাশুড়িকে নিয়ে পালাল জামাই !!!

স্টিং নিউজ সার্ভিসঃ  পিরিতে মজিলে মন কিবা হাড়ি কিবা ডোম। রবীঠাকুর আবার বলেছিলেন  প্রেমের ফাঁদ পাতা ভূবনে, কখন কে ধরা পড়ে কে জানে।’   তাই বলে শাশুড়ির প্রেমে জামাই! শুধু প্রেম নয়, লাজলজ্জার মাথা খেয়ে  শাশুড়িকে নিয়ে পালাল জামাই। ঘটনাটি ঘটেছে  পূর্ব বর্ধমানের কেতুগ্রামে।।

বছর দুয়েক আগে বিয়ে হয়েছে। তাদের এক বছরের একটি সন্তানও রয়েছে। কিন্তু স্ত্রীকে ছেড়ে যে শাশুড়ির প্রেমে হাবুডুবু জামাই।  কেউ ঘুণাক্ষরেও টের পায়নি। তাই সুযোগ বুঝে স্ত্রী ও সন্তানকে ফেলে শাশুড়িকে নিয়ে পালিয়ে গেল জামাই ! কি বিশ্বাস হচ্ছে না তো !!! বিশ্বাস আপনাকে করতেই হবে। কারণ  স্ত্রী-সন্তানকে ফেলে রেখে শাশুড়িকে নিয়ে পালানোর ঘটনায় ইতিমধ্যেই  থানায় অভিযোগ জানানো হয়েছে। প্রায় দু’সপ্তাহ ধরে খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না জামাই-শাশুরির।

জামাই-শাশুরির পলায়নকে ঘিরে কেতুগ্রামে শুরু হয়েছে হাসি-ঠাট্টা ও মসকরা। পানের দোকান থেকে শুরু করে চায়ের দোকান সব জায়গাতেই ওই একই আলোচনা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কাটোয়ার কেতুগ্রামের যুবক প্রসেনজিত হাজরার সঙ্গে মোবাইল ফোনে অনুরূপা বর্মনের প্রথম পরিচয় হয়। তারপর ২০১৬ সালে প্রসেনজিত অনুরূপা বর্মনকে পালিয়ে নিয়ে গিয়ে বিয়ে করেন। প্রথমে বাড়িতে রাজি না থাকলেও পরে দুই পরিবারের পক্ষে থেকে মেনে নেওয়া হয় তাদের বিয়ে।

গত ৬ মে দুপুরে খাওয়া দাওয়ার পর অনুরূপা  তার মা ও ছেলেকে নিয়ে শুয়েছিলেন। পাশের ঘরে শুয়েছিলেন প্রসেনজিৎ। বাবা কৃষ্ণ বর্মন ব্যবসার কাজে বাইরে ছিলেন। বিকালে ঘুম থেকে ওঠার পর অনুরূপা দেখতে পান তার মা ও স্বামী বাড়িতে নেই।  কিন্তু ততক্ষণে লেখা হয়ে গিয়েছিল ‘ প্রেমের কাহিনী’। বাংলা সিনেমায় গান হিট করেছিল, “পুলিশ চোরের প্রেমে পড়েছে” আর বর্ধমানে এখন শাশুড়ি জামাই নিয়ে চর্চা জমে উঠেছে।

loading...

এছাড়াও চেক করুন

বেসরকারি ব্যাংকের নাম করে লোন দেওয়ার নামে প্রতারণার শিকার হালিশহরের টোটো চালক

সৈকত গাঙ্গুলী, ব্যারাকপুর: জেঠিয়া পূর্ব পাড়ার বাসিন্দা রাজু বসু পেশায় টোটো চালক। তার টোটোতে মাস দুয়েক …

Leave a Reply

Your email address will not be published.