Breaking News
Home >> Breaking News >> বায়োস্কোপ – ২০১৮

বায়োস্কোপ – ২০১৮

ঋদ্ধি ভট্টাচার্য,কলকাতা: বাঙালি বলতেই আমরা বুঝি গরম ছানার রসগোল্লা । রসগোল্লা বলতে আমরা বুঝি রসগোল্লার শহর কলকাতা । আর কলকাতা বলতে আমরা বুঝি সত্যজিৎ আর মৃনাল সেন । বাঙালিরা বরাবরই চলচ্চিত্র জগতে আলোড়ন ফেলে এসেছে । বিশেষ করে যখন আমাদের ইন্ডিয়ান ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি কোন স্টেরিওটিপিক্যাল সিনেমা র পদ্ধতি তে এগোতে চেয়েছে , বাঙালিদের মতো সেই স্টেরিওটিপে ভাঙার জুড়ি মেলা ভার । সে কান এর ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল এ হোক কি অস্কার এর মঞ্চ, বাঙালিরা কখনো বঙ্গদেশের মাথা হেট্ করেননি। সিনেমা র জগতে সত্যজিৎ মৃনাল সেন রা দাপিয়ে কাজ করেছেন এক রাশ লিমিটেশনস আর বিশাল বরো একটা প্রব্লেমেটিক সোসাইটি থাকা সত্ত্বেও। সেই ফিল্ম জগতে আজকেও বাঙালিরা মোটেই পিছিয়ে নেই । একে একে আর্টফিল্মস , টেলিফিল্মস এমন কি রক্ষণশীল সমাজের স্টেরিওটিপে ভেঙে সিনেমা তে সমাজ কে নগ্ন করে দেখাতেও দ্বিধা করেননি বঙ্গদেশের পরিচালকরা । তবে সিনেমা বানাতে যেই তিনটে জিনিস এর মূলত প্রয়োজন , শিল্পী , গল্প ও অর্থ , সেই তিনটে জিনিস এর মধ্যে চতুর্থ জিনিসটার অভাব পরে যায় অনেক সময়এ । তাই অর্থ যাতে কখনো ফিল্ম প্রোডাকশন আটকে রাখতে না পারে তার জন্যই , ৪০ মিনিট এর কম সময় এর সিনেমা কে শর্ট ফিল্ম হিসেবে অনুমোদন করে একাডেমী অফ মোশন পিকচার্স আর্টস এন্ড সাইন্সেস ।বর্তমানে ইউটুবে এবং অন্যান্য বিভিন্ন সুলভ অনলাইন প্লাটফর্ম এর কল্যানে শর্ট ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি হয়ে উঠেছে একটা বোরো মাপের ইন্ডাস্ট্রি । ছোট বোরো অনেক মাপের পরিচালক বিভিন্ন বয়স ও বিভিন্ন সামাজিক স্তর থেকে উঠে এসে যোগদান করেছে এই শর্ট ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি তে । আর এতেই বা বাঙালি রা পিছিয়ে কোথায় । বঙ্গদেশের অযান্ত্রিক বা অনুকূল এর মতো বিভিন্ন বোরো মাপের লেখকদের গল্প নিয়ে বাঙালি ফিল্ম মেকার রা শর্ট ফিল্ম বানিয়ে আন্তর্জাতিক স্তরে বাহবা কুড়িয়েছেন । আর আজকের দিনে বর্তমান যুগে বাঙালিদের মধ্যে একটা নেশা ও পেশা হয়ে উঠেছে শর্ট ফিল্ম । বাঙালি রা এখন কফি হাউসে বসে বসে , সিগারেট এর ধোয়া ওড়াতে ওড়াতে এই আলোচনা করে না যে সিনেমার গল্প মাথায় থাকলেও , প্রডিউস কে করবে । শর্ট ফিল্ম এর কল্যানে তারা আলোচনা করছে , রানিং সিকুয়েল টা গ্রেই টোন এ নেবে নাকি sepia , shoot টা ডিস্লার এ করা হবে নাকি মোবাইল ক্যামেরায় । আগামীতে যে দিনে আসছে তাতে নিঃসন্দেহে বলা যেতে পারে , বাঙালিরা আবার আগের মতোই বিশ্বের দরবারে শর্ট ফিল্ম কে উচ্চ থেকে উচ্চমানে নিয়ে যাবে এবং বঙ্গদেশ আবার গর্ব করে বিশ্বের দরবারে বঙ্গসন্তানদের বাহবা কুড়োবে । নেতাজি সুভাষ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ এর বিয়োস্কোপ অনুষ্ঠান মূলত এই বিভিন্ন স্তর থেকে উঠে আশা বিভিন্ন পরিচালকদের একটা মঞ্চ দেয়ার ছোট্ট প্রচেষ্টা যাতে এখানে পরিচালকেরা নিজেদের শিল্প শর্ট ফিল্ম এর মাধ্যমে প্রকাশ করতে পারে এবং আগামী তে আরো শর্ট ফিল্ম বানানোর উৎসাহ পায় । এটি হবে আগামি ১৩ থেকে ১৫ এপ্রিল।

loading...

এছাড়াও চেক করুন

মালদার কালিয়াচক থানার সাইলাপুর থেকে প্রচুর বোমা উদ্ধার

বিশ্বজিৎ মন্ডল,স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট,মালদাঃ মালদার কালিয়াচক থানার সাইলাপুর থেকে প্রচুর বোমা উদ্ধার।মঙ্গলবার এখানেই বোমা ফেটে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.