Breaking News
Home >> Breaking News >> মুর্শিদাবাদ পুলিশের তোলাবাজির অভিযোগে রণক্ষেত্র নদিয়ার পলাশী, গাড়িতে আগুন, নামলো র‍্যাফ

মুর্শিদাবাদ পুলিশের তোলাবাজির অভিযোগে রণক্ষেত্র নদিয়ার পলাশী, গাড়িতে আগুন, নামলো র‍্যাফ

তৌসিফ মণ্ডল, পলাশী, নদিয়া: রক্ষকই ভক্ষক। সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার দিকে নজর না দিয়ে জাতীয় সড়কে দাঁড়িয়ে তোলাবাজির অভিযোগ উঠল পুলিশের বিরুদ্ধে। আর টাকা দিতে না চাওয়ায় লরির চাকায় গুলি করে গাড়ি থামিয়ে ড্রাইভারকে বেধড়ক মারধর করে বীরত্বের পরিচয় দিল মুর্শিদাবাদ জেলার রেজিনগর থানার পুলিশ। আর মুর্শিদাবাদ পুলিশের লাগামহীন তোলাবাজির প্রতিবাদে স্থানীয় মানুষ ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে। অবরোধ চলে দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত। অবরোধ তুলতে স্থানীয় মানুষের উপর চলল লাঠিচার্জ, ফাটানো হয় কাঁদানেগ্যাস। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে নামে র‍্যাফ।

মঙ্গলবার ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়া ও মুর্শিদাবাদ জেলার সীমান্তে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে পলাশীর জানকী নগর এলাকায়। পুলিশের কাণ্ডজ্ঞানহীন আচরণে এদিন ক্ষুব্ধ জনতা দুটি সরকারি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয় ও ভাঙচুর করে বলে সূত্রের খবর।

অভিযোগ, ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে দিন রাত পুলিশ গাড়ি আটকে তোলাবাজি করে। টাকা দিতে রাজি না হলে কেসে ফাঁসিয়ে দেওয়ার ভয় দেখায়। এদিনও ঠিক তেমনি দুপুর নাগাদ নদিয়ার পলাশীর একটি গাড়ি  (নম্বর WB37 A7362) বালি নিয়ে আসছিল। সেই সময় জাতীয় সড়কে গাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে পাঁচ হাজার টাকা দাবী করে বলে অভিযোগ।ওই ট্রাকের ড্রাইভার টাকা দিতে অস্বীকার করে। তখন গাড়িটিকে ধাওয়া করে রেজিনগর থানার পুলিশ। প্রত্যক্ষ্যদর্শীদের অভিযোগ, মুর্শিদাবাদ সীমান্ত ছাড়িয়ে নদিয়া পৌঁছানোর পরই গাড়ির চাকায় গুলি করে রেজিনগর থানার বিজন রায় নামে একজন এসআই । তার পর ড্রাইভারকে রাস্তায় ফেলে বেধড়ক মারধর শুরু করে।

অভিযোগ যে, পুলিশের মারে গুরুতর আহত হয় পলাশীর জানকীনগর গ্রামের বাসিন্দা ওই গাড়ির ড্রাইভার। মানুষ জন দেখতে পেয়ে পুলিশকে ধাওয়া করে। পুলিশ আশঙ্কাজনক অবস্থায় ড্রাইভারকে নিয়ে মুর্শিদাবাদে যেতে না পেরে পলাশীর মীরা আরওপিতে এসে আশঙ্কাজনক ড্রাইভারের চিকিৎসা করার জন্য মীরা আরওপি’র পুলিশকে বলে কিন্তু মীরা আরওপি’র পুলিশ নিতে অস্বীকার করে। তখন রেজিনগর পুলিশ ড্রাইভারকে নিয়ে কৃষ্ণনগরের দিকে পালিয়ে যায়। ধুবুলিয়া থানা এলাকার একটি হাসপাতালে ড্রাইভারের চিকিৎসা শুরু হয় বলে সূত্রের খবর। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন প্রত্যক্ষদর্শীর অভিযোগ, “রেজিনগর শিল্প তালুক, লোকনাথ পুরে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে পুলিশ সারা দিন তোলাবাজি করে। এদিন দুপুরে বালির লরির ড্রাইভারকে জোর করে নামিয়ে প্রচন্ড মারধোর করে পুলিশে।” এই ঘটনায় স্থানীয় মানুষ ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে।

পলাশীর রণক্ষেত্রের সেই এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখুন স্টিং নিউজেঃ 

loading...

এছাড়াও চেক করুন

কাটোয়ার কুরচি গ্রামে একপশলা বৃষ্টি

গৌরনাথ চক্রবর্ত্তী, কাটোয়া: প্রচণ্ড দাবদাহের পর ঝড়ো হাওয়ার সঙ্গে একপশলা বৃষ্টি হল কাটোয়া ২নংব্লকের কুরচি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.