Breaking News
Home >> Breaking News >> দঃ পূর্ব রেলের হাওড়া-খড়গপুর শাখায় লাইন টপকানো দস্তুর হয়ে উঠেছে !

দঃ পূর্ব রেলের হাওড়া-খড়গপুর শাখায় লাইন টপকানো দস্তুর হয়ে উঠেছে !

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, হাওড়া: প্রায় নিয়ম করে প্রচার চালান হচ্ছে তবুও হুশ ফিরছে কোথায়? স্টেশনে ওভারব্রিজ থাকলেও সময় বাঁচাতে লাইন টপকে যাওয়ার রেওয়াজ সেই আগের মত রয়েই গিয়েছে।

দঃ পূর্ব রেলের হাওড়া-খড়গপুর শাখার প্রায় প্রতিটি স্টেশনে রয়েছে ওভারব্রিজ। লাইন পার হয়ে যেতে নিষেধ করে ঘোষণাও করা হচ্ছে তবুও ভোর থেকে রাত অবধি লাইন পার করে যাওয়ার ছবি চোখে পড়বে। অনেকে দুর্ঘটনার কবলে পড়ছেন। কেউ আবার আর পি এফ এর কাছে ফাইন দিয়ে নিস্তার পারছে। তবুও এতটুকু হেলদোল নেই যাত্রীদের মধ্যে।

স্টেশন সাঁকরাইল।

ব্যস্ত লোকাল স্টেশনের মধ্যে একটি। সর্বদা ৪ নম্বর প্লাটফর্মে থাকে মালগাড়ি। কোনক্রমে গলে ট্রেন ধরতে যাচ্ছে বহু যাত্রী। পুরুষ যাত্রীদের পাশাপাশি মহিলা যাত্রীরাও একিভাবে মালগাড়ির নিচে দিয়ে গলে প্লাটফর্মে উঠছে। স্টেশনে ডাউন ট্রেন আসে মূলত ৪, ৩ ও ২ নম্বর প্লাটফর্মে। চার নম্বর ও তিন নম্বর প্লাটফর্ম একি হলেও দুই নম্বর প্লাটফর্ম যেতে গেলে লাইন টপকেই যাচ্ছেন যাত্রীরা। সমীর মন্ডল পেশায় বেসরকারি অফিসের অ্যাকাউন্টেট তাঁর কথায়, এই স্টেশনে ডাউন ট্রেন ঢুকবার সময় স্টেশন বদল করবার এনাউন্স হয়। যাত্রীরা কোনভাবেই ওভারব্রিজ ব্যবহারের সময় পায় না। ট্রেন ধরতে বাধ্য হয়েই লাইন পার হতে হয়। তবে এটা একদমি বেআইনি। আর এক যাত্রী পৃথা মজুমদার জানান, এই স্টেশনে প্রায় প্রতিদিন চার নম্বর লাইনে মালগাড়ি দাঁড়িয়ে থাকে। অনেকেই দেখি মালগাড়ির নিচ দিয়ে জীবন ঝুঁকি নিয়ে গলে যায়। একবার তো দেখলাম মালগাড়ি ছাড়বার সময় এক যাত্রী প্রবেশ করছিল কোনক্রমে বেরিয়ে আসেন। সে যাত্রায় বেঁচে যান।

স্টেশন মাস্টার যাত্রীদের দিকেই আঙুল তুলেছেন। আর পি এফ মাঝেমধ্যে ফাইন করেই সব দোষ ইতি টানতে চায়।

স্টেশন উলুবেড়িয়া।

সমস্ত লোকাল ট্রেন ও বেশকিছু দূরপাল্লা ট্রেন এখানে নিয়ম করে দাঁড়ায়। মহকুমা, কলেজ, হাসপাতাল, আদালত সহ সমস্ত দফতর থাকায় হাজার হাজার যাত্রী উলুবেড়িয়া স্টেশনে ওঠানামা করেন। অনেকে আবার ডোমপাড়া হয়ে বাস ধরেন। এরা ডাউন লাইন ধরে প্রায় তিনশো মিটার হেঁটে ডোমপাড়া মোড় গিয়ে বাস ধরেন। দুর্ঘটনা ঘটে তবুও লাইন ধরে হেঁটে চলা থামে না। রেল সূত্রে খবর, উলুবেড়িয়া লেবেল ক্রসিং কিছুদিনের মধ্যেই বন্ধ হয়ে যাবে। ওখানে রেল লাইনের উপর ওভারব্রিজ নির্মাণ কাজ এখন শেষ পর্যায়ে। চালু হলে ওখানে বাস দাঁড়াবে না। লাইন ধরে চলাচল বন্ধ হবে। আরও একটি সূত্রের খবর, রাজ্য সরকার উলুবেড়িয়া স্টেশন ধার দিয়ে একটি বাইপাস নির্মাণ করবে। যাতে করে উলুবেড়িয়ার যান চলাচল গতি পাবে।

স্টেশন বাগনান।

দঃ পূর্ব রেলের আর একটি ব্যস্ত স্টেশন। ভোরের প্রথম লোকাল থেকে রাতের শেষ লোকাল অবধি বাগনান স্টেশন ছুঁয়ে হাজার হাজার মানুষ যাতায়াত করে। দুই নম্বর প্লাটফর্মে ট্রেন থেকে নেমে ওভারব্রিজ না ধরে সটান লাইন টপকে এক নম্বর প্লাটফর্মে চলে আসেন ছেলে মেয়ে সকলে। বলবার কোন অবকাশ নেই। অবনি সামন্ত চাকরি সূত্রে খড়গপুর থাকেন। এইভাবে লাইন টপকে যাওয়া বিপদজনক প্রথমে না বুঝলেও এখন বোঝেন। ট্রেন চলে যেতেই ঝুপঝাপ লাফ দিয়ে নেমে পড়া। লাইন টপকে পৌঁছে যাবার আগেই পায়ে একটি পাথর ছিটকে লাগে। সেই চোট সারতে বেশ কয়েকমাস সময় লাগে।

আরপিএফ সূত্রে খবর, লাইন টপকাতে গিয়ে ধরা পড়লে সেই সময় মুচলেকা দিয়ে ছাড় পাবার চেস্টা করে। ফাইনও নেওয়া হয় পরে যেই কে সেই। দেখা গেছে এক ব্যক্তি দু’বার তিন’বার ফাইন দিয়েছে তবুও লাইন টপকানো ছাড়েননি। কবে লাইন টপকানো ছেড়ে ওভারব্রিজ ধরে হেঁটে যাবার হুশ ফিরবে এর উত্তর কারোর কাছে নেই।

loading...

এছাড়াও চেক করুন

হালিশহর বানিমন্দির এলাকায় বোমাতঙ্ক

স্টিং নিউজ সার্ভিস: শুক্রবার গভীর রাতে হালিশহর বানিমন্দির সংলগ্ন ওয়ার্ড অফিসের সামনে কিছু দুষ্কৃতী বোমা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.