Breaking News
Home >> Breaking News >> জঙ্গলমহলের মানুষ সব সহ্য করবে কিন্তু মমতা বন্ধ্যোপাধ্যায় এর নামে কুৎসা সহ্য করবে না: অজিত মাইতি 

জঙ্গলমহলের মানুষ সব সহ্য করবে কিন্তু মমতা বন্ধ্যোপাধ্যায় এর নামে কুৎসা সহ্য করবে না: অজিত মাইতি 

কার্ত্তিক গুহ,ঝাড়গ্রাম:  বাতাসে বারুদের গন্ধ। জওয়ানদের ভারী বুটের শব্দ এখন অতীত। শান্তি ফিরেছে সারা  জঙ্গলমহলে । লালগড় এখন আতঙ্কের নয় উন্নয়নের গড়। গুলি-বন্দুকের সেই লড়াই আর নেই। নেই মাওবাদী কার্যকলাপও। সেই সব আজ অতীত। শুধু লালগড়ই নয়। উন্নয়নের ছোঁয়া পৌঁছেছে সুদুর গ্রামগুলিতেও। বড় রাস্তার সঙ্গে জুড়েছে গ্রামের পিচ ঢালা রাস্তা। হয়েছে নার্সিং কলেজ।লালগড় ঢুকলেই দেখা যাবে মাথাতুলে দাড়িয়েছে জঙ্গলমহলের প্রথম নার্সিং ট্রেনিং কলেজ।আসন্ন পঞ্চায়েত ভোটে উন্নয়ন কে হাতিয়ার করে মাঠে  নেমেছে তৃনমুল।বৃহস্পতিবার লালগড় লাইব্রেরী মাঠ থেকে লালগড় মূল বাজার হয়ে লালগড় নবকুন্জ মাঠ পর্যন্ত যুব তৃণমূল কংগ্রেসের ডাকে মহামিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে উপস্হিত ছিলেন তৃণমূলের ঝাড়গ্রাম জেলা সভাপতি অজিত মাইতি, রাজ্যের অনগ্রসর শ্রেনী কল্যান মন্ত্রী তথা গোপিবল্লভপুরের বিধায়ক চূড়ামনী মাহাত ,ঝাড়গ্রামের বিধায়ক তথা পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়নপর্ষদের চেয়়্যারমেন ডাঃসুকুমার হাঁসদা ,শালবনীর বিধায়ক শ্রীকান্ত মাহাত ,যুব তৃণমূলের যুব সভাপতি দেবনাথ হাঁসদা , নয়াগ্রামের পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি উজ্বল দত্ত  এছাড়া জেলা নেতৃত্ব প্রমুখ উপস্হিত ছিলেন।
কেন্দ্রীয় বিজেপি যেমন সর্বাঙ্গ কলঙ্ক মাখিত  মুকুল রায় কে দিলীপ বাবুর মাথার উপরে বসিয়ে দিয়েছে তাই ওনাকেই না বিজেপি শাসিত রাজ্যে চলে যেতে হবে এটাই আমাদের চিন্তা হচ্ছে । জেলা সভাপতি   অজিত মাইতি আরও বলেন যে দিলীপ বাবু রাজনিতীতে অনেক কম দিন এসেছেন তাই ২০১১ সালের বাংলা তো ওনি দেখেন নি তাই সমৃব্ধ বাংলা ওনার চোখে পড়েন নি ।তাই উনি যত কম কথা বলেন ততই ভাল । 
পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে অজিত বাবু বলেন ঝাড়গ্রাম জেলায়  ভাল ফল করবে । উনি যতই মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী সম্বন্ধে বলুন জঙ্গলমহলের মানুষ তা মেনে নেবেনা ।

loading...

এছাড়াও চেক করুন

ধুবুলিয়া থানায় বিস্কুট খেয়ে পুলিশ ভ্যানে খুদেরা চললো স্কুলে

শুভায়ুর রহমান, ধুবুলিয়া, নদিয়া: সকাল ১০ টা নাগাদ থানার ভিতর কচিকাঁচাদের কোলাহলে মুখরিত হয়ে উঠল …

Leave a Reply

Your email address will not be published.