Breaking News
Home >> Breaking News >> অবশেষে ধুবুলিয়ার সোনডাঙ্গার নিখোঁজ শিশুকন্যার দেহ মিললো পুকুরে

অবশেষে ধুবুলিয়ার সোনডাঙ্গার নিখোঁজ শিশুকন্যার দেহ মিললো পুকুরে

স্টিং নিউজ সার্ভিস: অবশেষে নদিয়ার ধুবুলিয়ার সোনডাঙ্গা গ্রামে নিখোঁজ শিশুকন্যার দেহ মিললো পুকুরে। মৃত শিশুকন্যার নাম রেশমি খাতুন, বয়স মাত্র দেড় মাস। ঘটনাটি সোনডাঙ্গা গ্রামের পাণ্ডবতলা ও দাসপাড়ার মাঝামাঝি সবুজ সংঘ ক্লাবের কাছে। গতকাল রাতে ধুবুলিয়া থানায় ওই শিশু কন্যার পরিবার থেকে একটি নিখোঁজ ডায়েরি করা হয়। গতকাল রাতে ধুবুলিয়া থানার পুলিস ও পরিবারে লোকজন মিলে খোঁজাখুজি করেও ওই শিশুকন্যার কোনো খোঁজ পাওয়া যায় নি। এরপর আজকে দুপুর একটা নাগাদ বাড়ি থেকে ৩০০ মিটার দূরে একটি পুকুরে মৃতদেহ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা। খবর পেয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে ধুবুলিয়া থানার পুলিস।

শিশুকন্যার মা সরিফা খাতুন বলেন, “রাত ৮ টার দিকে আমি মেয়েকে কোলে নিয়ে পাশের বাড়িতে টিভি দেখতে যাচ্ছিলাম, সেইসময় কেউ পিছন থেকে ধাক্কা দেয়, আমি অজ্ঞান হয়ে যায়। সংগা ফিরলে দেখি বাচ্চা নেই, তখন আমি চিৎকার শুরু করি। প্রতিবেশীরা ছুটে আসে।”

শিশুকন্যার দাদু জুহা শেখ বলেন, “মৃত শিশু কন্যা আমার নাতনি। আমার মেয়ের বিয়ে দিয়েছি নবদ্বীপ থানার মহেশগঞ্জে। আমার মেয়ে সরিফার এক ছেলে ও দুই মেয়ে। বড় ছেলের বয়স ৫ বছর, একটি মেয়ের বয়স আড়াই বছর, আর যে মেয়েটি মারা গেল সে সবচেয়ে ছোট। শিশুটি সিজার করে হয়েছিল। জন্মের পর থেকেই আমার মেয়ে রেশমা ও শিশুকন্যাটি আমার বাড়িতেই ছিল।”

তিনি আরও বলেন “আমার জামাই রাজমিস্ত্রি। খুব ভালো জামাই। বছর ছয়েক আগে মহেশগঞ্জে মেয়ের বিয়ে দিয়েছিলাম। শত্রুতার জেরে কেউ আমার নাতনিকে খুন করেছে। আমি খুনির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কোনো গ্রেপ্তার হয়নি। তবে শিশুটির মাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

Check Also

​বাইকের ধাক্কা মৃত্যু হল এক শিশুর

মনিরুল হক,স্টিং নিউজ করসপনডেন্ট,কোচবিহার:  দীপাবলির রাতে মোটর বাইকের ধাক্কায় মৃত্যু হল এক শিশুর। বৃহস্পতিবার রাত …

Leave a Reply

Your email address will not be published.