Breaking News
Home >> Breaking News >> মৃত্যুর ৪ ঘন্টা পরেও দেহ পড়ে থাকল ফুটপাতে

মৃত্যুর ৪ ঘন্টা পরেও দেহ পড়ে থাকল ফুটপাতে


প্রসুন বন্দ্যোপাধ্যায়, পাঁশকুড়া:  ​মৃত্যুর চার ঘণ্টা পরেও মৃতদেহ পড়ে রইল পাঁশকুড়ার ফুটপাতে।সোমবার অমানবিক ঘটনাটি ঘটেছে পাঁশকুড়া স্টেশনের ৪০০ মিটার এর মধ্যে ।স্থানীয় সূত্রে খবর মদন  গোপাল দাস (৫৮ ) প্রতিদিনের মতো এদিনও খড়গপুর ডিআরএম অফিসে  কাজ যোগ দিতে যান ।সন্ধ্যার সময় অফিস থেকে বাড়ি ফেরার জন্য ট্রেনে করে পাঁশকুড়ার  উদ্দেশ্যে রওনা দেন । ষ্টেশনে নেমে হাঁটাপথে  ভাড়া বাড়ির উদ্দেশ্যে  এগোতে থাকেন ।সামনে গাড়ি চলে আসায় তিনি সরে যান রাস্তা থেকে ফুটপাতে। বৃষ্টিতে রাস্তা কর্দমাক্ত হওয়ায় পা পিছলে পড়ে যান তিনি। মাথায় গুরুতর আঘাত লাগে। মাথা থেকে রক্তপাত হতে থাকে। পথচলতি  মানুষই  প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য ডাক্তারের কাছে নিয়ে যায়। স্থানীয় চিকিৎসক মৃত বলায়  মৃতদেহ রাস্তার একপাশে ফুটপাতে ফেলে চলে যায় ।তারপর চার ঘন্টা একইভাবে মৃতদেহ পড়ে থাকে। উৎসুক মানুষ ভিড় জমায় । কেউ মৃতদেহটিকে সরানোর ব্যবস্থা করেনি ।রেল দফতরের আধিকারিকরাও এসে দেখে যান। ঘটনার দেড় ঘণ্টা পরে রেলের ডাক্তার আসেন তিনি ও মদনবাবুকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। তারপরে তিন ঘন্টা কেটে গেলে ও তার মৃতদেহ স্থানান্তরিত করা হয়নি। একইভাবেই ফুটপাতেই পড়ে থাকে ।স্থানীয় ব্যবসায়ী মুঘলেশ আজম খান জানান রেলের তরফ থেকে লোকজন এসে দেখে গিয়েছেন ,কেউ একজন স্ট্রেচারে করে ও ওনাকে নিয়ে যাননি ।আমরা মৃতদেহটিকে  আলোর সামনে রেখেছি ।খুব অমানবিক ঘটনা ।খবর পেয়ে কনকপুর থেকে মদন গোপাল বাবুর ভাড়াবাড়ির মালিক নভেন্দু সরকার  ছুটে আসেন। জানান মদনবাবু একজন পেশায় খড়গপুর ডিআরএম অফিসের  চিফঃ অফিস সুপারিনটেনডেন্ট  ছিলেন। এদিনও প্রতিদিনের মত তিনি কাজ সেরে বাড়ি ফিরছিলেন, কেউ সহযোগিতা করেনি এখানে পড়ে  আছেন ।বাড়ি কোলকাতার মধ্যমগ্রামে ।এই অমানবিক ঘটনার কারণ জানতে আমরা  যাই পাঁশকুড়ার স্টেশনম‍্যনেজার  মেঘরাই হঁসদার কাছে ।তিনি জানান ঘটনার খবর পেয়ে রেলের ডাক্তার কে ডেকে পাঠানো হয় ।তিনি এসে সাতটা পঁয়তাল্লিশ  নাগাদ মৃত ঘোষণা করেন। দেহ সরানো  হলো না কেন জানতে চাওয়ায় জানান পাঁশকুড়া থানার এরিয়া ।থানায় খবর দেওয়া হয়েছে ।পুলিশ না আসা পর্যন্ত কিছুই করার নেই।  ঘটনাটি অমানবিক, খারাপ লাগছে ।পথচলতি মানুষ আব্দুল হামিদ আলী জানান রেলের অফিসারকে যদি ফুটপাতে পড়ে থাকতে হয় তাহলে সাধারণ মানুষের কী হবে। অবশেষে রাত্রি এগারোটা পনেরো নাগাদ  পাঁশকুড়া থানার পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করেন।মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে তমলুক হাসপাতালে।

Check Also

মাঝ গঙ্গায় লঞ্চ থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করলেন এক বৃদ্ধা

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট হাওড়াঃ চার মেয়ে বিবাহিত, রয়েছেন এই শহরে তবুও কেউ দেখে না। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.