Breaking News
Home >> Breaking News >> ​সুতাহাটাতে ব্লুহোয়েলের শিকার দশম শ্রেণীর ছাত্র

​সুতাহাটাতে ব্লুহোয়েলের শিকার দশম শ্রেণীর ছাত্র


প্রসুন বন্দ্যোপাধ্যায়, সুতাহাটা: দেড় লক্ষ টাকার বাইক কিনে দেওয়ার জন্যে বাড়িতে অশান্তির কারণ খুঁজতে গিয়ে দশম শ্রেণীর ছাত্র অর্পনের ব্লুহোয়েলে আশক্তির কথা জানতে পারলো পরিবারের লোকেরা। বাইক কিনে দেওয়ার জন্যে বাড়িতে অশান্তি  ও হাতে ব্লু হোয়েল আঁকা দেখেই সকলে নিশ্চত হয় ছাত্রটি ব্লু হোয়েলের শিকার হয়েছে। এর পরেই সুতাহাটা থানাতে খবর দেয় পরিবারের লোকেরা।  সুতাহাটা থানার পুলিশ এসে মোবাইলটিকে বাজেয়াপ্ত  করেছে। 
সুতাহাটা থানার গৌরাঙ্গপুরের বাসিন্দা অর্পন মহাপাত্র স্থানীয় পার্বতীপুর পতিতপাবন হাইস্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্র। বাবা সুব্রতরমহাপত্র হলদিয়ার একটি কারখানায় শ্রমিকের কাজ করে। হঠাৎ করে বাবা মার কাছে দেড়লক্ষ টাকা দামের বাইক কিনে দেওয়ার জন্যে জেদাজেদী শুরু করে। বাবা বাইক দিতে অস্বীকার করলে দাদাকে মার ধর ও বাড়ির জিনিসপত্র ভাঙচুর শুরু করে। এর পরে হাতে ব্লু হোয়েলের ছবি আঁকা দেখেই পরিবারের লোকেদের সন্দেহ হয়। বাড়ির লোকেরা পুলিশে খবর দেওয়ার পাশাপাশি   অর্ণবকে চিকিৎসার জন্যে হাসপাতালে ভর্তি করে।  এই খবর প্রকাশ্যে আসার পরে এলাকাতে চাঞ্চ্বল্য ছড়ায়। 





পুলিশ ও পরিবারের লোকেরা জানিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ব্লু হোয়েল গেমের কথা জানতেষপারে অর্পন।  রবিবার রাতে মোবাইলে ব্লু হোয়েল গেম ডাউনলোড করে অর্ণব। ভোর ৪টা পর্যন্ত ১৮টি ধাপ খেলার পরে ১৯তম ধাপে একটি দেড় লক্ষ টাকা দামের বাইক কেনার জন্যে নির্দেশ আসে। এর পরে সে বাইক কিনে দেওয়ার জন্যে বাড়িতে অশান্তি শুরু করে। নির্দেশে বলা হয় বাইক কিনে না দিলে খুন করার জন্যে। অর্পনের বাবা সুব্রত মহাপাত্র বলেন আমার এত দামের বাইক কিনে দেওয়ার সামর্থ নেই বলতে ও অশান্তি শুরু করে। এর পরে ওর হাতে ব্লু হোয়েলের ছবি দেখে আমরা নিশ্চিত হই ও ব্লু হোয়েলের শিকার হয়েছে। সোমবার ওর চিকিৎসার জন্যে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছেন। সুতাহাটার ওসি জলেশ্বর তেওয়ারি বলেন ওর হাতে যাতে আর মোবাইল   দেওয়া না হয় তার জন্যে বাবা মাকে বলেছি। বুধবার  অর্পণের সাথে দেখা করতে আসেন স্থানীয় প্রশাসনিক কর্তারা। এসপি অলোক রাজোরিয়া বলেন এই গেম যাতে ছেলে মেয়েরা না খেলে তার জন্যে বাবা মা দের নজর রাখতে বলা হচ্ছে পাশিপাশি এই নিয়ে সচেতনতা বাড়ানোর উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। 

পতিতপাবনী হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক শ্যামসুন্দর চট্টপাধ্যায় বলেন ওকে দেখে আমরা কিছু বুঝতে পারিনি। এমন ঘটনা ঘটবে কখন ভাবিনি।

Check Also

শিক্ষামূলক ভ্রমন পরিচালনায় বড়কইল উচ্চবিদ্যালয়ের ভূগোল বিভাগ

পল মৈত্র, দক্ষিণ দিনাজপুর: বক্সা জয়ন্তী ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে পালন করলো বালুরঘাট বড়কইল উচ্চবিদ্যালয়ের তুষার কান্তি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.