Breaking News
Home >> Breaking News >> বিজেপি প্রার্থীর নাবালক ছেলেকে মারধোরের অভিযোগ, প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি

বিজেপি প্রার্থীর নাবালক ছেলেকে মারধোরের অভিযোগ, প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি

মনিরুল হক, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, কোচবিহারঃ বিজেপি প্রার্থীর নাবালক ছেলেকে প্রচণ্ড মারধর করার অভিযোগ, তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতিদের বিরুদ্ধে। আহত নাবালক মাথাভাঙ্গা মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। মঙ্গলবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে মাথাভাঙ্গা থানার তেঁতুলের ছড়া গ্রামে। বিজেপি প্রার্থী মহিমা রায় বর্মনের অভিযোগ, এদিন রাতে একটি পিক আপ ভ্যান ও কিছু মোটর বাইকে করে বন্দুক সহ বিভিন্ন অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতিরা তার বাড়িতে হামলা চালায়। বাড়ির বিভিন্ন আসবাব থেকে শুরু করে অনেক কিছু ভাঙচুর করে। দুষ্কৃতিরা ৪০ হাজার টাকা লুঠ করে নিয়ে যায় বলেও অভিযোগ। সেই সঙ্গে আরও অভিযোগ, তার নাবালক ছেলেকেও দুষ্কৃতিরা মারধর করে। দুষ্কৃতিদের হাত থেকে বাঁচতে তার ছেলে বাথরুমে আশ্রয় নিলে দুষ্কৃতিরা তাকে সেখান থেকে টেনে বার করে আনে। এরপর বাড়ির পিছনে বাগানে নিয়ে গিয়ে মাটিতে ফেলে তাকে লোহার রড, লাঠি দিয়ে বেদম মারধর করা হয়। ছেলে জোর হাত করে দুষ্কৃতিদের কাছে প্রাণ ভিক্ষা চাইলে সে নিস্তার পায়। এই ঘটনায় মহেন্দ্র বর্মন, তপন বর্মন, কৃষ্ণ বর্মন সহ ১৫ জনের নামে থানায় এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। পঞ্চায়েত নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মাথাভাঙ্গায় রাজনৈতিক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটছে। তৃণমূল-বিজেপির পক্ষ থেকে একে অপরের দিকে হামলার অভিযোগ করছে। তবে এদিন এক নাবালক ছেলের উপর হামলার ঘটনায় মাথাভাঙ্গা জুড়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বলে জানা গিয়েছে।
আহত নাবালকের বাবা গোপাল রায় বলেন, “গতকাল রাতে পিক আপ ভ্যান ও মোটর বাইকে চেপে দুষ্কৃতিরা আসে। তাদের সঙ্গে স্থানীয় তৃণমূলের গুণ্ডারা মিলিত হয়ে আমার বাড়িতে হামলা চালায়। পাথরের সঙ্গে বন্দুকের গুলিও ছোঁরা হয়। বাড়ির ভিতরে আমরা ছেলেকে মারধর করে। তারপর বাগানে নিয়ে গিয়ে প্রাণে মারার হুমকি দেয়। ছেলে তখন তাদের কাছে প্রাণ ভিক্ষা চায়। আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।”

loading...

এছাড়াও চেক করুন

প্রচুর টাকার বিজ্ঞাপনের লোভ দেখিয়ে হিন্দুত্বের প্রচার ? স্টিং অপারেশনে তোলপাড় দেশ

স্টিং নিউজ সার্ভিসঃ আজ ২৬ মে  সংবাদ প্রতিদিনের ওয়েবসাইটে একটি খবর প্রকাশ হয়েছে, যা নিয়ে তোলপাড় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.