Breaking News
Home >> Breaking News >> কন্যা সন্তান হওয়ার জের, ভালোবাসার দিনে স্ত্রীকে মেরে ফেলার চেষ্টা!

কন্যা সন্তান হওয়ার জের, ভালোবাসার দিনে স্ত্রীকে মেরে ফেলার চেষ্টা!

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, হাওড়া: “আজ ভালোবাসার দিনে আমার স্বামী আমাকে মারধোর করে মেরে ফেলতে চাইছে।” শুধুমাত্র কন্যা সন্তান হওয়ার অপরাধে স্ত্রীকে লাগাতার অত্যাচার। এমনকি আজ মুখে বালিশ চাপা দিয়ে মারবার চেষ্টা করে বলে অভিযোগ উঠেছে।

হাওড়া চ্যাটার্জীহাট থানা এলাকার ঘোষপাড়ার এনাক্ষী (২৮) সাথে বিয়ে হয় আরামবাগের রামকৃষ্ণপল্লি এলাকার পিন্টু দাসের। পেশায় পিন্টু রোড কন্ডাকটর। অভিযোগ বিয়ের পর থেকে সন্তান না হওয়ার কারণে অশান্তি লেগেই থাকত। ৮ বছর পর অনেক মানতের শেষে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দেয় এনাক্ষী। কন্যা সন্তান হওয়ায় অত্যাচারের পরিমাণ বেড়ে যায়। স্বামী ও শাশুড়ি মিলে মানসিক ও শারীরিক অত্যাচার করতে শুরু করে। গায়ে গরম জল ফেলে দেয়। এমনকি গরম লোহার ছেঁকা অবধি দেওয়া হয়। হাতের কনুইয়ের নিচে কালো দাগের ছাপ দগদগ করছে। কয়েকবার মেরে ফেলার চেষ্টা হয়। সেই সময় আরামবাগ থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়।

এনাক্ষীর কথায়, মারধোর থেকে বাঁচতে একপ্রকার বাধ্য হয়ে সন্তান নিয়ে হাওড়ায় বাপের বাড়িতে চলে আসে। হঠাত করে আজ সকালে স্বামী চলে আসেন হাওড়ার বাপেরবাড়িতে। এসেই মারধোর করা শুরু করে। অভিযোগ তুলে না নিলে মেরে ফেলবার হুমকি অবধি দেওয়া হয়। এদিন স্বামী পিন্টু বালিশ চাপা দিয়ে মারতে চায়। চিৎকার চেঁচামেচি শুনে সবাই ছুটে আসে বলে কোনক্রমে রক্ষা পাই।”

আজ হাওড়া মহিলা থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এনাক্ষী কোলের সন্তান নিয়ে ফুঁপিয়ে বলতে থাকে, “আজ ভালোবাসার দিনে আমাকে আমার স্বামী মেরে ফেলতে চাইছে!”

loading...

এছাড়াও চেক করুন

প্রচুর টাকার বিজ্ঞাপনের লোভ দেখিয়ে হিন্দুত্বের প্রচার ? স্টিং অপারেশনে তোলপাড় দেশ

স্টিং নিউজ সার্ভিসঃ আজ ২৬ মে  সংবাদ প্রতিদিনের ওয়েবসাইটে একটি খবর প্রকাশ হয়েছে, যা নিয়ে তোলপাড় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.