Breaking News
Home >> Breaking News >> চাপড়ার দুর্ঘটনায় মানবিকতার নজির মহিদুলদের 

চাপড়ার দুর্ঘটনায় মানবিকতার নজির মহিদুলদের 


সমীর রুদ্র, স্টিং নিউজ, চাপড়া, নদিয়া: “যদি আরও একটু আগে ওদের হাসপাতালে পাঠাতে পারতাম,তাহলে হয়তো প্রাণ দুটো বেঁচে যেতো ” বিলাপ করে চলেছেন মহিদুল ইসলাম দফাদার (ঝন্টু)।

গত শুক্রবার রাতে চাপড়ার হাঁটরায় ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটে। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে যান মহিদুল ইসলাম দফাদার ,হামিদ সেখ ,মফিদুল মন্ডল,হাজিবর দফাদার সহ স্থানীয় বাসিন্দারা। তারাই প্রথমে উদ্ধারকার্য শুরু করে।

চালক সহ দশ জন টোটো আরোহীর মধ্যে ঘটনাস্থলেই পাঁচ জন মারা যায়। আহত পাঁচজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায় মহিদুলরা। পরে হাসপাতালে আরও দুজন মারা যায়।

কিন্তু আহতদেরউদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো সহজ ছিলনা। ঘটনাস্থল থেকে চাপড়া প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র প্রায় আট কিলোমিটার দূর।পুলিশি হয়রানি ও গাড়িতে রক্ত লাগার কথা ভেবে পথচলতি কোনো গাড়ি আহতদের হাসপাতালে নিয়ে যেতে রাজি হচ্ছিল না। এমন অবস্থায় মহিদুল নিজেই উদ্ধারকর্তা হয়ে ওঠে। তখনই সাত-পাঁচ না ভেবে বাড়ি থেকে নিজের সখের গাড়ি নিয়ে এসে আহতদের হাসপাতালে পাঠায় মহিদুল।

সময়মতো হাসপাতালে পৌঁছাতে পারায় প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন তিন জন। মহিদুলদের ভূমিকায় গর্ব অনুভব করছে হাঁটরার মানুষ।
কিন্তু মহিদুল আফসোস করে বলছেন “গাড়িতে রক্ত লাগা বা আইনি সমস্যার থেকেও মানুষগুলো কে বাঁচানোর দিকেই বেশি লক্ষ্য ছিল। যদি আরও একটু আগে হাসপাতালে পাঠাতে পারলে হয়তো ঐ দুজনকে বাঁচানো সম্ভব হতো”।

এদিকে সারাদিনের ব্যস্ত কর্মসূচি সেরে সবে বাড়ি ফিরেছিলেন চাপড়া ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি জেবের সেখ।তখনই খবর আসে হাঁটরার ভয়াবহ দুর্ঘটনার । তড়িঘড়ি ছুটে যান চাপড়া ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে। সেখানে তখন হাঁটরায় আহতদের নিয়ে আসা হয়েছে। প্রাথমিক চিকিৎস্যার পরই আহতদের শক্তি নগর জেলা হাসপাতালে স্থানান্তরের ব্যবস্থা করেন তিনি। সেখান থেকেই ছুটে যান ঘটনাস্থলে। সেখানে তখন উত্তেজিত গ্রামবাসী গাড়ি চালকে গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে। মহিদুল সহ স্থানীয় নেতৃত্বদের সঙ্গে নিয়ে পরিস্থিতি সামলান তিনি।

loading...

এছাড়াও চেক করুন

প্রচুর টাকার বিজ্ঞাপনের লোভ দেখিয়ে হিন্দুত্বের প্রচার ? স্টিং অপারেশনে তোলপাড় দেশ

স্টিং নিউজ সার্ভিসঃ আজ ২৬ মে  সংবাদ প্রতিদিনের ওয়েবসাইটে একটি খবর প্রকাশ হয়েছে, যা নিয়ে তোলপাড় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.