Breaking News
Home >> Breaking News >> মধ্যমগ্রামে সিভিক পুলিশের মারে মৃত্যু হল এক স্কুটি চালকের

মধ্যমগ্রামে সিভিক পুলিশের মারে মৃত্যু হল এক স্কুটি চালকের

দীপঙ্কর ভৌমিক,বারাসাত: সিভিক ভলান্টিয়ারের মারে মৃত্যু হল এক স্কুটি চালকের। ঘটনাস্থল উত্তর ২৪ পরগণার মধ্যমগ্রাম। ঘটনাস্থলে উত্তেজনা।
মৃত ব্যক্তির নাম সোমেন দেবনাথ । বাড়ি মধ্যমগ্রামের শ্রী নগর এলাকায়। মৃত সোমেন বাবু পেশায় বস্ত্র ব্যাবসায়ী । ব্লাউজ ও ড্রেস গার্মেন্ট নিয়ে কারবার করেন। তাঁর বয়স ৪৫।বাড়িতে স্ত্রী ও দুই মেয়ে রয়েছে ।

বাদু রোড ধরে স্কুটিতে তিনি মধ্যমগ্রাম চৌমাথার দিকে যাচ্ছিলেন। মধ্যম গ্রাম সাবওয়ের কাছে হেলমেট ছাড়া গাড়ি চালাচ্ছেন কেন জানতে চেয়ে তার গাড়ি আটকায় জনৈক সিভিক ভলান্টিয়ার। গাড়ির কাগজপত্র দেখতে চাওয়া হয়। এরপরই বাকবিতণ্ডা শুরু হয় সোমেন বাবু এবং উপস্থিত সিভিক পুলিশের সাথে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন তার পর হঠাৎ করে সিভিক সোমেন বাবুকে কিল ঘুষি মারতে থাকে । ছুটে আসে আরো দু তিন জন সিভিক । অভিযোগ এরা সবাই মিলে মারধর করে সোমেন বাবুকে। অভিযোগ বুকে ঘুষি মারতেই পড়ে যান সোমেন দেবনাথ । পড়ে গেলেও লাথি মারা হতে থাকে। সংজ্ঞা হীন সোমেন বাবুকে হাসপাতাল নিয়ে যাওয়ার পথে মৃত্যু হয় । সিভিক দের তুলে নেওয়ার দাবীতে ও অভিযুক্ত দের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবীতে এক ঘণ্টার ওপরে স্থানীয় মানুষজন মধমগ্রাম বাদু রোড অবরোধ করে ।। ঘটনা স্থলে উপস্থিত হয় কমব্যাট ফোর্স ও বিরাট পুলিশ বাহিনী। অবরোধ উঠলেও দুপুর একটা নাগাদ থানার সামনে শুরু হয় জমায়েত ও ঘেরাও। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সৌমেন রায় নামে এক সিভিক ভলান্টিয়ার গ্রেফতার হয়েছে, এবং বাকি তিন জন অভিযুক্ত এখনও পলাতক। ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হয়েছেন স্থানীয় বিধায়ক, তার কাছে দাবি জানানো হয়েছে,মৃত সোমেন দেবনাথের পরিবারের একজন সদস্যের চাকরির ব্যবস্থা করে দিতে হবে। বিধায়ক আশ্বাস দিয়েছেন, এই দাবি নিশ্চই ভেবে দেখা হবে, এবং দোষীরা খুব শীঘ্রই ধরা পড়বে।

দেখুন ভিডিও :

Check Also

বীজপুর থানার উদ্যোগে পালিত হল পথ নিরাপত্তা বিষয়ক শোভাযাত্রা

দেবাশিস রায়: বীজপুর থানার উদ্যোগে ১৯ ফেব্রুয়ারি, সোমবার পালিত হল শোভাযাত্রা। ‘পথ নিরাপত্তা সপ্তাহ’ উদযাপনের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.