Breaking News
Home >> Breaking News >> দীর্ঘ ১২ বছর পর শান্তিপুরে একটি খুনের মামলায় দোষী  ৮ জনকে ৬ বছরের সশ্রম কারাদন্ড

দীর্ঘ ১২ বছর পর শান্তিপুরে একটি খুনের মামলায় দোষী  ৮ জনকে ৬ বছরের সশ্রম কারাদন্ড


কমল দত্ত,নদিয়া: ২০০৫ সালে সামসের  সেখ নামে শান্তিপুরের এক ব্যাক্তি তার নিজের বাড়ি নির্মান করছিল।সেই সময় বেশ কয়েকজন দুষ্কৃতী  তাকে আক্রমন করে।সামসের সেখ তার স্ত্রী হাউতান বিবি ছেলে সিরাপত সেখ এই ৩ জনকে আসামীরা দা,কুড়োল এবং হাসোয়া দিয়ে এলোপাথারী কোপায় সকলকে।খুনের উদ্দ্যেশে আসে দুষ্কৃতকারীরা।গুরুতর জখম অবস্থায় ওই ৩ জনকে প্রথমে শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতাল ও কৃষ্ণনগরে স্থানান্তরিত করার আগেই শান্তিপুরে সামসের এর মৃত্যু হয়।বাকী দুজন চিকিতসা হবার পর বেচে যায়  বলে জানাগেছে।এই ঘটনায় নবিয়ত সেখ একটি মামলা করে ২১.৬.২০০৫ সালে।শান্তিপুর কেস নং – ১৮৬, তারিখ ২১.০৬.২০০৫ সাল, আন্ডার সেকশন ৩২৫/৩২৬/৩০২/৩৪ আই পি সি। সেই মামলার আজ ছিল চুড়ান্ত দিন।এই কেসে ১৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহন করার পর সোমবার রানাঘাট আদালতের বিচারক ৮ জন অভিজুক্তকে দোষী সাবস্ত করা হয়।এবং তাদের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়।যারা  দোষী সাবস্ত হলেন তাদের নাম- নিয়ামত শেখ,আজাদ শেখ, মহিদুল শেখ,আতাই শেখ, নাজিবুদ্দিন শেখ,নাসির শেখ,হেকমত শেখ,এবং বুলন শেখ।সরকার পক্ষের আইনজিবী অপুর্ব কুমার ভদ্র বলেন আদালত যথার্থ বিচার বিবেচনা করে সাজা দান করবে।এদের যাবত  জীবন সাজা হওয়া উচিত ছিল।এরা নির্মম ভাবে যে হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে তার জন্য তাদের এই শাস্তি প্রয়োজন।আসামী পক্ষের আইনজিবী করুনাকেতন সরকার।এই মামলার বাদী নবিয়ত সেখ বলেন আসামীরা সিপিয়াইএম আশ্রিত গুন্ডা বাহিনী।

আজ শান্তিপুরের এই খুনের মামলায় গতকাল ৮ জন আসামীকে দোষী সাবস্ত করার পর।রানাঘাট ফাস্ট ট্রাক কোর্ট এর বিচারক দেবব্রত কুন্ডু ৮ জন আসামীকেই  ৬ বছর করে সশ্রম কারাদন্ড।এবং ২ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে ৩ মাস জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয়।ঘটনা ঘটেছিল নদিয়ার শান্তিপুর থানার সুত্রাগড় গাইনপাড়ায়।

এছাড়াও চেক করুন

সরকারী টাকায় কেনা কীটনাশক, সার, বীজ তছরুপ গোয়ালতোড়ে

কার্তিক গুহ , ঝাড়গ্রাম : সরকারি টাকায় কেনা গোডাউন ভর্তি কীটনাশক, সার, বীজ । অথচ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.