Breaking News
Home >> Breaking News >> ইনস্টিটিউশনাল ডেলিভারিতে  রাজ্য সেরা মীরা প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র

ইনস্টিটিউশনাল ডেলিভারিতে  রাজ্য সেরা মীরা প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র

স্টিং নিউজ সার্ভিস, পলাশি:তিন দশকের বেশি সময়ের বাম রাজত্বে রাজ্যের ভেঙে পড়া স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজাতে নিরন্তর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন পরিবর্তনের সরকার। স্বাস্থ্য পরিষেবা গ্রামের মানুষও সমান সুযোগ গ্রহণ করছে। গর্ভবতী মায়েদেরকে এক্কেবারে গ্রামের স্বাস্থ্যকেন্দ্র গুলিও উন্নত মানের পরিষেবা দিয়ে চলেছে।তার ফল স্বরূপ ইনস্টিটিউশনাল ডেলিভারিতে সবার উপরে উঠে এলো নদিয়ার কালীগঞ্জ ব্লকের মীরা প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের নাম।

মীরা প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র ইনস্টিটিউশনাল ডেলিভারি পরিষেবায় রাজ্যের সেরা বিবেচিত হয়েছে বলে স্বাস্থ্যকেন্দ্র সূত্রে খবর।

জানাগেছে গত  ২০১৭ সালে ইনস্টিউশনাল ডেলিভারিতে প্রথম হয়েছে।এই স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি নদিয়া মুর্শিদাবাদ জেলার সীমান্তে অবস্থিত। কালীগঞ্জ ব্লকের বিস্তীর্ণ অংশ ছাড়াও মুর্শিদাবাদ জেলার রেজিনগর থানার একটি অংশের গর্ভবতী মায়েদের নিয়ে আসা হয়।দশ বেডের প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে বর্তমানে ২ জন ডাক্তার রুগি দেখেন। এছাড়াও প্রতিদিন আউটডোর শয়ে শয়ে মানুষ চিকিৎসারর জন্য আসেন বলে স্বাস্থ্যকেন্দ্র সূত্রে খবর।জানাগেছে কালীগঞ্জের বি এমও এইচ এর তত্বাবধানে চিকিৎসার মান উন্নত হয়েছে।এছাড়া কালীগঞ্জের প্রাক্তন বিধায়ক নাসিরুদ্দিন আহমেদ ২০১১-১৬ সালের মধ্যে জেলায় ১২০ কোটি টাকার উন্নয়ন মূলক কাজ করেন। তার মধ্যে চিকিৎসা ব্যবস্থাকে আরো উন্নত করার জন্য চেষ্টা করেন বলে এলাকার মানুষের দাবী।
বর্তমানে এই স্বাস্থ্যকেন্দ্রের সৌন্দর্যায়নের জন্য কাজ শুরু হয়েছে।স্বাস্থ্যকেন্দ্রের পরিকাঠামোর উন্নতি নতুন ভাবে রুগী পরিচর্যার জন্য গোটা এলাকাকে ঢেলে সাজানো হচ্ছে।খুব শীঘ্রই স্বাস্থ্যকেন্দ্রের ভিতরে একটি পার্ক গড়ে উঠবে বলে জানাগেছে।

স্বাস্থ্যকেন্দ্র সূত্রে খবর, যে রাজ্যের সেরা স্থান অর্জনে পুরস্কার স্বরূপ পঞ্চাশ হাজার টাকা পাওয়া গিয়েছে।এছাড়া পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার জন্য সেন্ট্রাল গর্ভনমেন্টের কাছ থেকে পুরস্কার পেয়েছে ২০১৭ সালে। এছাড়া ২০১৬ সালেও ইনস্টিটিউশনাল ডেলিভারিতে  এই স্বাস্থ্যকেন্দ্র সেরা হয়। দু,বছরে ৯০০ জন মা সন্তান প্রসব করেছেন।যা রাজ্যে কোথাও নেই বলে জানিয়েছেন মীরা প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রের ডাক্তার পলাশ বিশ্বাস।মীরা প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রের রুগি কলাণ সমিতির চেয়ারম্যান সুরেশ আগরওয়াল বলেন” ২০১১ সালের আগে রাজ্যের বেহাল স্বাস্থ্য ব্যবস্থার কথা সবাই জানেন।মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী  মমতা ব্যানার্জি বর্তমানে যে উন্নত স্বাস্থ্য পরিষেবা  দিয়ে  চলেছেন তার ফল পাচ্ছেন গ্রাম বাংলার মানুষ। আর এলাকার প্রাক্তন বিধায়ক নাসিরুদ্দিন আহমেদ প্রচুর কাজ করেছেন এই ব্লকে।তার ফল মানুষ পাচ্ছেন।উনি এখনো মানুষের পাশে আসেন।”কালীগঞ্জের প্রাক্তন বিধায়ক তথা তৃনমূল কংগ্রেসের নদিয়া জেলার সংখ্যালঘু সেলের চেয়ারম্যান নাসিরুদ্দিন আহমেদ জানান” এলাকার মানুষ ভাল থাক আমি মনে প্রানে চাই।মীরা প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র রাজ্যে প্রথম হয়েছে তাতে কালীগঞ্জের মানুষ গর্বিত।”

Check Also

বিধাননগরে অনুষ্ঠিত হল দার্জিলিং জেলা মহিলা তৃণমূল কংগ্রেস ২নং ফাঁসিদেওয়া ব্লক সম্মেলন

বিশ্বজিৎ সরকার, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, দার্জিলিং: শিলিগুড়ির মহকুমার ফাঁসিদেওয়া ব্লকের বিধাননগরে অনুষ্ঠিত হল দার্জিলিং জেলা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.