Breaking News
Home >> Breaking News >> প্রশাসনের তৎপরতায় দুই নাবালিকার বিয়ে বন্ধ হল মুর্শিদাবাদে

প্রশাসনের তৎপরতায় দুই নাবালিকার বিয়ে বন্ধ হল মুর্শিদাবাদে

মইনুল ইসলাম ও সৌমিত্র দাস,স্টিং নিউজ,মুর্শিদাবাদ : বিয়ের জন্য পাকা দেখা সম্পূর্ণ। তোড়জোড় চলে আয়োজনে।কিন্তু বাড়ির সামনে আচমকা হন হন করে চার চাকা গাড়ি এসে দাঁড়ায়। গাড়ি থেকে জনা কয়েক ব্যক্তি বাড়ি জিজ্ঞাসা করে। পথ চলতি এক ব্যক্তি বাড়িটি দেখিয়ে দেয়।মুর্শিদাবাদ জেলার বহরমপুর ব্লকের দক্ষিণ বলরামপুর কলোনির বাসিন্দা বাপি দাসের নাবালিকা মেয়ের বিয়ে কথা শুনেই ব্লক প্রশাসন, পুলিশ ও সিনির কর্মীদের আগমন।  জানা যায় বাপি দাসের মেয়ে পায়েল দাস বলরামপুর হাইস্কুলের নবম শ্রেনীর ছাত্রী। বিয়ের কথা ছিল পাশের গ্রামের বছর ছত্রিশের যুবক রাজু ঘোষের সাথে।কিন্তু নাবালিকা বিয়ের কথা শুনে আগেভাগে সটান বাড়িতে হাজির প্রশাসন ও সিনির কর্মীরা। পায়েলের অভিভাবক অভিভাবিকাদের নাবালিকা বিবাহের কুফল সম্পর্কে বোঝান হয়। অবশেষে পায়েলের পরিবারের পক্ষ থেকে মুচলেকা দেওয়া হয়।
অন্য দিকে শুক্রবার মুর্শিদাবাদ জেলারই সামসেরগঞ্জ ব্লকের দক্ষিণ হিজলতলা গ্রামের বাসিন্দা নুরুল ইসলামের নাবালিকা মেয়ে আবিদা সুলতানার বিয়ে রুখে দিল ব্লক প্রশাসন ও মুর্শিদাবাদ চাইল্ড লাইন।
জানা গেছে পাশের গ্রামের রাজু হোসেনের সাথে আবিদার বিয়ে ঠিক হয়।সামসেরগঞ্জ ব্লকের সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক জয়দীপ চক্রবর্তীর কানে আসে নাবালিকা বিবাহের ঘটনাটি।তিনি দেরি না করে দ্রুত ব্লক যুব আধিকারিক অঞ্জন দাস মুর্শিদাবাদ চাইল্ড লাইনের কর্মী বিপ্লব বারিককে সঙ্গে নিয়ে আবিদাদের বাড়িতে হাজির হন।  আবিদার পরিবারের সদস্যদের নাবালিকা বিবাহের কুফল বোঝালে পরিবারের লোকজন মুচলেকা দেন। আবিদাও অনেকদূর পড়তে চায় বলে জানায়। ব্লক যুব আধিকারিক অঞ্জন দাস আবিদার হাতে পড়াশুনোর সরঞ্জাম তুলে দেন।

Check Also

লোকসভা ও বিধানসভা ভোটে জেতার পথ বাতলে দিলেন রবি

মনিরুল হক, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট, কোচবিহারঃ পঞ্চায়েত নির্বাচনই আগামী লোকসভা ও বিধানসভা নির্বাচনের জয়ের পথ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.