Breaking News
Home >> Breaking News >> হাওড়ায় রঘু ডাকাতের কালীপূজো আজও জমজমাট 

হাওড়ায় রঘু ডাকাতের কালীপূজো আজও জমজমাট 

কল্যাণ অধিকারী, স্টিং নিউজ করেসপনডেন্ট হাওড়াঃ বয়সে যথেষ্ট প্রবীণ হাওড়া বালি নিমতলা ঘাটের কালীপূজো। কবে থেকে এই পুজো শুরু হয়েছিল, তাও নির্দিষ্ট করে বলা সম্ভব নয় ৷ তবে জানা গেছে আনুমানিক তিনশ বছর আগেকার এই পুজো।
ডাকাতি করাটাই ছিল একসময় তাঁর কাজ। সেইমত এক রাতে রঘু ডাকাত ডাকাতি করতে এসে হাওড়া বালি নিমতলা ঘাটে তাঁর নৌকা বাঁধে। নিমতলা ঘাটে কালীপূজো করেন তা প্রায় আনুমানিক তিনশ বছর আগে। তার পর থেকে এই জায়গায় কালী পুজোর আরাধনা হয়ে আসছে। এখন অশোক রায়চৌধুরী পুজো করে আসছেন।    
একসময় রঘু ডাকাতের নাম শুনলেই লোকে ভয় পেতেন। প্রধানত বড়লোক তথা যাদের কাছে অর্থ প্রচুর থাকত তাঁদের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়ে গরীবদের মাঝে নির্দ্বিধায় বিলিয়ে দিতেন। এরপর একদিন এখানে ডাকাতি করতে আসেন রঘু ডাকাত। বালি নিমতলা ঘাটে কালীপূজো করেন এবং থাকতে শুরু করেন। রঘু ডাকাতের পরবর্তী সময় এই ভয়ঙ্কর কালী মূর্তি থাকতেন তাঁর মা। রঘু ডাকাতের পর থেকেই এই ভয়ঙ্কর কালী মূর্তিকে লোকে ভয় পেতেন। তখন পাতালে (মাটির তলায় ছিল কালী মূর্তি)। তার পর ওই ভয়ঙ্কর কালী মূর্তি সরিয়ে দিয়ে ছোট কালী মূর্তি প্রতিষ্ঠা করা হয়। 
এই মুহূর্তে হাইকোর্টের সনামধন্ন উকিল অশোক রায়চৌধুরী এই কালী মন্দিরের দায়িত্বে রয়েছে দেখাশোনা। আগে ওনার বাবা সেবায়েত ছিলেন। রঘু ডাকাতের গল্প ও মূর্তি বহু জায়গায় রয়েছে। এখানেও রয়েছে তেমন একটি জাগ্রত মন্দির রয়েছে। এখানে কোনকিছু মানত করলে ফল পাওয়া যায়। এখানে কালীপূজো প্রতি বছর ধুমধাম করে হয়ে আসছে।       

Check Also

বোলপুরের মহিদাপুর গ্রামে পথ দুর্ঘটনায় মৃত এক

দেবস্মিতা চ্যাটার্জ্জী, বীরভূম: বোলপুরের মহিদাপুরে মোটর বাইকের ধাক্কায় মৃত্য হল একজনের, আরেকজন গুরুতর আহত অবস্থায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.